নৌকার সাথে বেঈমানী করলে দল থেকে বহিস্কার- এমএ রশীদ

0

নারায়ণগঞ্জ,বিজয় বার্তা ২৪

01 (1)বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এমএ রশীদ বলেছেন,নৌকার সাথে কেউ বেঈমানী করবেন না। কেউ যদি বেঈমানী করেন তাহলে দল থেকে বহিস্কার হবেন। তিনি বলেন,১৫বছর পর বন্দরে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা এসেছে সবাইকে নৌকার জয় নিশ্চিত করে ঘরে ফিরতে হবে। অতীত ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে দলকে ঐক্যবদ্ধ করে নৌকার জন্য কাজ করতে হবে। মঙ্গলবার রাতে বন্দরের ধামগড় নিজ বাস ভবনের উঠানে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে বন্দর থানা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী এবং অঙ্গ সংগঠন সমূহ আয়োজিত জরুরি সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আবেদ হোসেনের পরিচালনায় জরুরী সভায় অন্যন্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন,নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম চৌধুরী, তথ্য ও প্রযুুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আইয়ুব আলী,বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মোঃ শফিউদ্দিন আহম্মেদ,সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ মোবারক হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা এড.ইসহাক,বন্দর থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি মোজাম্মেল হক,বন্দর থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ভোলানাথ,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আব্দুর রউফ,মদনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দিন,ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম,মুছাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মজিবুর রহমান,বন্দর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পনির,কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ইব্রাহীম কাশেম,বন্দর থানা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাজী হাবিবুর রহমান,সদস্য ওসমান গনি ভূইয়া,জানু, বন্দর থানা যুবলীগের সভাপতি এড.হাবিব আল মুজাহিদ পলু,সাধারন সম্পাদক মোঃ হাতেম খন্দকার,বন্দর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল হাসান আরিফ প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়রম্যান এম এ সালাম, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রফিক,মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়রম্যান প্রার্থী কাদির ডিলার, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন,ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আলমাস ভূইয়া,নাসিক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু,ফয়সাল মোঃ সাগর,বন্দর থানা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নূর হোসেন,সাবেক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শাহজাহান মোল্লা,বন্দর থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী সালিমা হোসেন শান্তা,সাধারন সম্পাদিকা সখিনা বেগম,বন্দর থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কমল,ছাত্রলীগ নেতা আরাফাত কবীর ফাহিমসহ অনেকে।জরুরি সভায় বিভিন্ন বক্তা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী নৌকার পক্ষে কাজ করার সংকল্প করেন।এবং কোন কোন বক্তা এও বলেন,আমরা লাঙ্গলের জন্য নৌকা ছেড়ে দিতে পারলে জাতীয়পার্টি কেন লাঙ্গল ছাড়তে পারবেনা।বক্তারা বন্দরে ৫টি ইউনিয়নে নৌকা প্রার্থীর বিজয় হওয়া মানে বন্দর বিজয় উল্লেখ করেন।পরিশেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ রশীদ দলকে চাঙ্গা করতে প্রতিটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে কর্মী সভা করার ঘোষনা দেন।

Leave A Reply