২২০ পাউন্ডের কেক কেটে না.গঞ্জ কলেজে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন করলেন সেলিম ওসমান

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবসে ২২০ পাউন্ডের কেক কেটে জন্মদিনের উৎসব উদযাপন করেছে নারায়ণগঞ্জ কলেজ। এছাড়াও বঙ্গবন্ধুর উপর বক্তব্য রাখায় ৫জনকে ল্যাপটব পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। অপরদিকে বিভাগীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়ানলীগে নটরডেম কলেজকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করায় কলেজের ফুটবল খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা প্রদান করায়। সংবর্ধনার পাশাপাশি তাদের প্রত্যেকটি একটি করে মোবাইল ফোন পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয়। পাশাপাশি বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগীতায় বিভিন্ন ইভেন্টে অংশ নেওয়া বিজয়ীদের মাঝে মোট ৭১টি পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

আর এ সব কিছুই নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উইজডম অ্যাটায়ার্স লিমিটেড এর সৌজন্যে প্রদান করা হয়।

শনিবার ১৮ মার্চ সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জ কলেজ মাঠে বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস, কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা এবং বিভাগীয় ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ান হওয়া নারায়ণগঞ্জ কলেজের ফুটবলারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব ঘটনা ঘটে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেলিম ওসমান জানান, গত বৃহস্পতিবার থেকে নারায়ণগঞ্জ কলেজের অর্থায়নে নতুন ভবনের কাজ শুরু হয়েছে। যা কিনা ১০তলার ফাউন্ডেশন ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এ বছরের মধ্যে কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে ৮তলা ভবনের কাজ সম্পন্ন করা হবে। আর সরকার থেকে আরো ২ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া যাবে। ওই অর্থ দিয়ে কলেজের সামনে আরো একটি নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে। নতুন ভবনে তোমাদের জন্য সকল সুযোগ সুবিধা থাকবে। ঢাকার নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী যেমন কোন চাকরির ইন্টারভিউ দিলে এক কথায় চাকরি হয়ে যায়। আমরা নারায়ণগঞ্জ কলেজকে নিয়ে সেইভাবে চিন্তা করছি। যাতে করে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী আর নারায়ণগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থী এক জায়গায় চাকুরির ইন্টারভিউ দিতে গেলে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীকে বাদ দিয়ে নারায়ণগঞ্জ কলেজের শিক্ষার্থীকে চাকুরি প্রদান করা হয়। তোমরা শুধু আমাদেরকে ভাল রেজাল্ট দিবে। তোমরা শুধু আমাদের কথা দিবে নারায়ণগঞ্জ কলেজে শিক্ষার্থীরা মাদকে আসক্ত হবে না। কলেজের ভেতরে জঙ্গীবাদ ঢুকবে না। আমরা তোমাদের জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবই করবো। আলাদা আলাদা বিভাগ, কম্পিউটার ল্যাব, সাইন্সল্যাব সহ একটি কলেজে আধুনিক যতকিছু প্রয়োজন তার সবই এই কলেজে ব্যবস্থা করা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের সহধর্মিনী মিসেস নাসরিন ওসমান বলেন, আমাকে সমাজসেবক বলা হচ্ছে। কিন্তু কোন সমাজ সেবক না। আমি আমার স্বামীর কাছ থেকে অনুপ্রানিত হয়ে আমি শুধু এমপি সাহেবকে সহযোগীতা করছি। আমি দেখে আসছি আমার স্বামীর দাদা, বাবা, বড় এবং ছোট ভাইয়ের নারায়ণগঞ্জের মানুষের সেবা করে আসছে। আমার স্বামীও নারায়ণগঞ্জের মানুষদের জন্য তোমাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তাই আমার সাধ্যের মত যতটুকু সম্ভব ততটুকু দিয়ে আমি সহযোগীতা করে যাচ্ছি। তোমরা শুধু আমাদেরকে ভাল ফলাফল উপহার দিবে, ভাল করে লেখাপড়া করে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হবে আমরা সব সময় তোমাদের পাশে থাকবো।

এর আগে বঙ্গবন্ধুর উপর বক্তব্য রাখায় নারায়ণগঞ্জ কলেজের উপাধক্ষ্য ফজলুল হক রুমন রেজা, কলেজের শিক্ষার্থী মনিষা বনিক, নজরুল ইসলাম, বিরাজ পাল চৌধুরী, ও শারমিন আক্তারকে একটি করে ল্যাপটব পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিভাগীয় ফুটবলে চ্যাম্পিয়ান হওয়ার গৌরব অর্জন করায় ১৫জন খেলোয়ারকে ১৫টি অ্যান্ডয়েড মোবাইল ফোন ও বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগীতায় বিজয়ী হওয়া শিক্ষক ও শিক্ষার্থী সহ মোট ৭১জনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

কলেজের অধ্যক্ষ কাজী চাঁদ সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, নারায়ণগঞ্জ কলেজের পরিচালনা পর্ষদের বিদ্যোৎসাহী সদস্য সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক ফারুক বিন ইউসুফ পাপ্পু, হিতৈষ্যি সদস্য মোস্তফা কামাল, অভিভাবক সদস্য বিকেএমইএ পরিচালক আব্দুল হান্নান, প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, কাজী সাইফুল উদ্দিন পলাশ, কলেজের উপাধক্ষ্য ফজলুল হক রোমন রেজা, শিক্ষক প্রতিনিধি আরিফ মিহির, রোকসানা করিম, মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave A Reply