আইভীকে আবারও ক্ষমা চাইতে বললেন শামীম ওসমান

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

জামায়াত বিএনপি’র পক্ষে কথা বলার পাশাপাশি আওয়ামীলীগের চেয়ারপার্সন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করার অভিযোগে আবারও সিটি মেয়র ড. সেলিনা হায়াত আইভীকে ক্ষমা চাইতে বলেছেন নারায়নগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব একেএম শামীম ওসমান।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিবেল সাড়ে তিনটায় ৩ টায় ইসদাইর ওসমানী পৌর স্টেডিয়াম সংলগ্ন শামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্স মাঠে অনুষ্ঠিত সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, মাদক নির্মূল এবং আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়ার প্রত্যয়ে আয়োজিত বৃহৎ জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহবান জানান।

শামীম ওসমান বলেন, আমার রাজনৈতিক মাতৃতুল্য জননেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে আইভী কটুক্তি করেছে। শুধু তাই নয়, আইভী আওয়ামীলীগের ব্যানারে জামায়াতের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। কোন সভা-সমাবেশে জামায়াত বিরোধী শ্লোগান হলে আইভী তা সমর্থন না করে উল্টো প্রতিবাদ করেন। তাই আবারও নারায়ণগঞ্জের মানুষ ও আওয়ামীলীগের সাথে সম্পর্ক রাখতে হলে আইভীকে ক্ষমা চাইতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমার সাথে কেউ অন্যায় অপরাধ করলে আমি তাকে ক্ষমা করে দেই। কিন্তু আমার  মাতৃতুল্য নেত্রী ও দল নিয়ে কেউ কোন কটুক্তি করলে তাকে ছাড় দেব না। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। দলীয় নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়িত করেছে। তাই আমি আগেও বলেছিলাম, এখনও বলছি দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে আইভীকে ক্ষমা চাইতে হবে।

শামীম ওসমান আরো বলেন, আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নেত্রী শেখ হাসিনা যদি দলীয় প্রতীক ‘নৌকা’ দেন তাহলে আনোয়ার ভাই মেয়র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন।

শামীম ওসমানের এই বক্তব্যের পরই উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মীরা দুই হাত তুলে মেয়র প্রার্থী হিসেবে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেনকে সমর্থন জানান।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য নারায়ণগঞ্জবাসীর কাছে দোয়া চান নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান। তিনি বলেন, আমি শামীম মরে গেলে হয়তো আমার বউ, সন্তান কাঁদবে। কিন্তু শেখ হাসিনা মারা গেলে গোটা জাতি একজন অভিভাবককে হারাবে।
শামীম ওসমান আরো বলেন, ৭৫’র এর পর কোন কিছু চাওয়া পাওয়ার জন্য রাজনীতিতে আসি নাই। শুধু মাত্র আবেগ ও বিবেগের তারনায় রাজনীতিতে এসেছি। আমার নেত্রী আমাকে ত্যাগের রাজনীতি শিক্ষা দিয়েছে। শিক্ষা দিয়েছে সত্যের রাজনীতি। তিনি শিখিয়েছেন রাষ্ট্রিয় ক্ষমতা ভোগ কারার জন্যে নয়,  মানুষের সেবা করার জন্যে।

Leave A Reply