নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক পদে চার তরুন নেতার লড়াই

0
শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আসন্ন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে চার তরুন নেতার লড়াই শুরু হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যাালয়ের সাবেক মেধাবী ছাত্রদল নেতা ও সোনারগাঁ থানা বিএনপি নেতা আজিজুল হক আজিজ, কেন্দ্রিয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু, কেন্দ্রিয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য এফ এম ইকবাল ও ফতুল্লা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল আলম সেন্টুর সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হওয়ায় গুঞ্জন চারদিকে শোনা যাচ্ছে। ইত্যিমধ্যেই তারা সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে কেন্দ্রে দৌড় ঝাপ শুরু করে দিয়েছেন। এদের মধ্যে কেউ কেউ কেন্দ্রিয় বিএনপির কাছে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র জমা দিয়েছেন বলে জানায় দলের একটি সূত্র।

দলীয় আরেকটি সূত্র মতে জানা যায়, আগামী ৩০ নভেম্বর বিএনপির সম্মেলন উপলক্ষে বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতাদের নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যেসব জেলা ও মহানগর কমিটির মেয়াদ এর মধ্যে শেষ হয়েছে তাদের আগামী ৩০ নভেম্বর সম্মেলনের মধ্য দিয়ে কমিটি গঠনের সম্ভবনা রয়েছে। তাই নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় কমিটি গঠনের সম্ভবনা রয়েছে। যেসব নেতাকর্মীরা দলের আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয়ভাবে অংশ্রগ্রহন করেছে ও দলের জন্য জেল ঝুলুম খেটে ত্যাগ স্বীকার করেছেন সেই সব নেতাদের নতুন কমিটিতে রাখা হবে বলে জানায় তারা। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির কমিটিতে মেধাবী তরুন নেতাদেরও অগ্রাধিকার বেশী দেওয়া হবে জানায় দলের কয়েক জন নেতা।

সাধারণ সম্পাদক পদে লড়াই করা এই চার নেতার কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে অবস্থান ভাল বলে জানায় নেতাকর্মীরা। এই চার জন নেতার মধ্যে ইতিমধ্যে সাবেক মেধাবী ছাত্রদল নেতা আজিজুল হক আজিজ সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হওয়ায় ঘোষনা প্রদান করেছেন। ১৯৯৫ সালে বিএনপির ছাত্রদল রাজনীতির মধ্য দিয়ে তার রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন। তিনি কেন্দ্রিয় ছাত্রদলের সহ-সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া ছাত্রদলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন পদে দায়িত্ব পালন করে বিএনপি রাজনীতিতে কাজ করেছেন। এর আগে আজিজুল হক আজিজ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হওয়ার সম্ভবনা ছিল। কিন্তু বিএনপি দশম জাতীয় নির্বাচন বর্জন করায় তার নির্বাচন করা হয়নি। বর্তমানে তিনি সোনারগাঁ থানা বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে অবস্থান করছেন। এছাড়া তিনি ২৭ তম বিসিএস পরীক্ষায় পুলিশ ক্যাডার বিষয়ে তৃতীয় স্থান অধিকার লাভ করার পরেও চাকরী থেকে বঞ্চিত হন। এদিকে মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দিপু যুবদলের কেন্দ্রীয় সহ অর্থ বিষযক সম্পাদক পদে ও নির্বাহীর কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া বর্তমানে তিনি রুপগঞ্জ থানা বিএনপির রাজনীতি করছেন। এদিকে এফ এম ইকবাল ১৯৯০ সালে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ে ছাত্রদলের রাজনীতির মধ্য দিয়ে বিএনপির রাজনীতি শুরু করেন। এছাড়া তিনি কেন্দ্রীয় যুবদলের সদস্য ছিলেন। আড়াইহাজার থানা ছাত্রদল ও যুবদলের গুরুত্বপূর্ন পদে দায়িদ্ব পালন করেছেন। অপরদিকে মনিরুল আলম সেন্টু যুবদল করতেন ও বর্তমানে ফতুল্লা থানা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি কুতুবপুর ইউনিয়ন থেকে তিনবার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ২৫ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি হিসেবে অ্যাড. তৈমুর আলম খন্দকার ও সাধারণ সম্পাদক পদে কাজী মনিরুজ্জামান মনির নির্বাচিত হয়। এর পর তারা দীর্ঘ সাত বছরেও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেননি। এর ধারবাহিকতায় দীর্ঘ ৭ বছর পর আগামী ৩০ নভেম্বর সম্মেলনের মধ্য দিয়ে জেলা বিএনপি’র কমিটি হতে যাচ্ছে।

শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

Leave A Reply