“সুষ্ঠ নির্বাচনের পুরোধা জননেত্রী শেখ হাসিনা”

0
শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মানণীয় প্রধানমন্ত্রী গনতন্ত্রের মানসকন্যা দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলে নির্বাচন সুষ্ঠ হয়। এটা আর নতুন কিছু নয়। যার উদাহারণস্বরূপ বলা যায়,নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন। আপনারা দেখেছেন গত ২২ ডিসেম্বর ২০১৬ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সুষ্ঠ, অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন। যেখানে ছিলনা কোন হানা-হানি, মারামারি ভোট দখল কেন্দ্র দখল ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ কিংবা ভোট বাক্স ছিনতাইয়ের মতো কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা।  এমনকি কোন সন্ত্রাসীদের  মহড়া বা পেশী শক্তির ব্যবহারের কোন সুযোগ। পুরুষ ভোটরা থেকে শুরু করে মা, বোনেরা নিশ্চিন্তে নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্র এসে তার নিজের পছন্দের প্রার্থীকে তাদের মুল্যবান ভোট দিতে পেরেছে। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সারা বাংলাদেশে এক বিরল ইতিহাস রচনা করেছে। এ থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত কিভাবে নির্বাচন সুষ্ঠ করতে হয়। জননেত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণগঞ্জের মানুষকে নৌকা  প্রতীক উপহার দিয়েছেন। পক্ষান্তরে নারায়ণগঞ্জবাসী জননেত্রীকে উপহার দিয়েছেন বিজয়ের মালা। প্রধানমন্ত্রীর তীক্ষèবুদ্ধি সুচারুনেতৃত্ব প্রার্থী বাছাইয়ের সর্তকতা সর্বপরি শক্তহাতে সবকিছু কন্ট্রোল করা হয়েছিলো। নারায়ণগঞ্জ এসে কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রচার অভিযান ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের সুদৃষ্টি এবং তৃনমূল থেকে জেলা পর্যন্ত নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা ও সাধারন মানুষের সহযোগিতা ছিল। সর্বোপরি যার কথা না বললেই নয় তিনি হচ্ছেন নারায়ণগঞ্জের গনমানুষের নেত্রী,ব্যাক্তিত্¦ের অধিকারীনী, অত্যন্ত পরিশ্রমী ও উন্নয়নের দিশারী নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়য় ডাঃ সেলিনা হায়াৎ আইভি। মোট কথা আইভি’র উন্নয়ন তাকে জয়লাভ করাতে সহায়তা করেছে। নারায়ণগঞ্জ সিটিতে ২৭ টি ওয়ার্ডে মোট ভোট কেন্দ্র ১৭৪ টি। ভোটারের সংখ্যা ৪ লক্ষ ৭৪ হাজার ৯শ’ ৩১ জন। তার মধ্যে আওয়ামীলীগ সমর্থীত মেয়র প্রার্থী ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভি  নেীকা প্রতীক পেয়েছে ১ লক্ষ ৭৪ হাজার ৬শ’২ ভোট। অপর দিকে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীক এড. সাখাওয়াত হোসেন খান পেয়েছে ৯৬ হাজার ৭শ ভোট। নির্বাচনের দিন ভোটারদের মধ্যে উৎসবের আমেজ দেখা গিয়েছিল। ভোটারার আনন্দের সাথে ভোট প্রদান করেন। ধন্যবাদ জানাই নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনকে। এবার নাসিক নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা ছিলো চোখে পড়ার মত। সর্বোপরি নাসিক নির্বাচন বাংলাদেশের সকল শ্রেনীর মানুষের মন জয় করেছে । ভবিষ্যতে সকল নির্বাচন শান্তিপূর্ন ভাবে শেষ হবে এ প্রতাশ্যা সকলের। ভাল থাকুন, সুস্থ্য থাকুন, নিরাপদে থাকুন।

সামসুল হাসান-লেখক, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও  কলামিষ্ট।

শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

Leave A Reply