বন্দরে অন্তঃস্বত্ত্বা স্ত্রী’কে হত্যার চেষ্টায় স্বামী আটক

0
শেয়ার করুনShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedInPin on PinterestPrint this pageEmail this to someoneShare on Tumblr

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

বন্দরে রিপা আক্তার(২৮)নামে অন্তঃস্বত্ত্বাকে জোরপূর্বক ঔষধ সেবন করিয়ে হত্যার চেষ্টা করে পাষন্ড স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। গত বৃহস্পতিবার রাতে চৌধুরীবাড়ী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় বন্দর থানায় গৃহবধু রিপা আক্তার বাদী হয়ে তার স্বামী আনোয়ারসহ ১ম পক্ষের পরিবারের স্ত্রী শাহানাজ বেগম ও ছেলে সাগরকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ১৭(৭)১৭ইং। এ ব্যাপারে মামলার বাদী গৃহবধু রিপা আক্তার জানান,গত ৫ বছর পূর্বে বন্দর থানাধীন চৌধুরীবাড়ী এলাকার মৃত জলিল মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেনের সাথে আমার ইসলামী শরিয়া মোতাবেক বিয়ে হয়। বিবাহের কিছুদিন পর আমি জানতে পারি আমার স্বামী আনোয়ার হোসেনের পূর্বে আরো একটি স্ত্রী ও সন্তান আছে। আমার স্বামী আমাকে চৌধুরীবাড়ী কাজীবাড়ী এলাকায় ভাড়া বাড়ীতে রাখত। প্রায় সময়ই তার ১ম পক্ষের স্ত্রী ও সন্তান আমাকে আমার ভাড়া বাড়ীতে গিয়ে গালমন্দ করত। গত ৫মাস পূর্বে আমি গর্ভবতী হই। আমার স্বামীর সন্তান আমার গর্ভে এই সু-সংবাদটি আমি আনন্দের সহিত আমার স্বামী জানাইলে আমার স্বামী ১ম পক্ষের পরিবারের সদস্যদের প্ররোচনায় রেগে যায় ও আমাকে গালমন্দ করে। আমার গর্ভের সন্তানটি নষ্ট করার জন্য প্রায়ই আমাকে চাপ দিত। আমি অস্বীকৃতি জানালে আমার গালমন্দ ও মারধর করত। এর ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার রাতে কাজীবাড়ী আমার ভাড়া বাড়িতে গিয়ে আমাকে আইসস্ক্রিম ও মজো খাওয়ায়। পরবর্তীতে আমার স্বামী আমাকে আমার গর্ভের সন্তানের জন্য ভাল হবে বলিয়া আমাকে তার পকেটে থাকা গুড়া ঔষধ খেতে বললে আমার সন্দেহ হয় এবং আমি খেতে অনিহা প্রকাশ করি। এক পর্যায়ে আমার স্বামী আনোয়ার হোসেন আমার গলা টিপে ধরে জোরপূর্বক আমাকে ঔষধ ও পানি সেবন করিয়ে চলে যায়। আমি কিছুক্ষন পরেই মারাত্বক পেট ব্যাথা অনুভব করি ও আমার খালাত বোনকে মোবাইল ফোনে অবহিত করিলে আমাকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার ব্যবস্থা করে। শনিবার রাতে বাদী রিপা আক্তার বন্দর থানায় মামলা করলে ওই রাতেই পুলিশ পাষন্ড স্বামী আনোয়ারকে চৌধুরী বাড়ী নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

 

শেয়ার করুনShare on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedInPin on PinterestPrint this pageEmail this to someoneShare on Tumblr

Leave A Reply