না’গঞ্জবাসী’র আকাঙ্খা’র উন্নত হাসপাতাল ও ইউনিভার্সিটি বাস্তবায়নে এমপি সেলিম ওসমানই শেষ ভরসা

0

মোঃ হুমায়ূন কবীর,বিজয় বার্তা ২৪

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সেলিম ওসমানের অনেগুলো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার সৌভাগ্য হয়েছে। দলীয় রাজনীতি গন্ডিতেও তিনি স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করেননা। নিদর্লীয়ভাবে উন্নয়নের কাজ করে কলুষের রাজনীতি থেকে মক্ত রাখার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তার প্রচেষ্টা কতটুকু স্বার্থকতা পেয়েছে তা বলাবাহুল্য সমস্ত নারায়ণগঞ্জ যেন এখন শীতল পাটি। আমরা সাধারণ নাগরিকদের মূল চাহিদা আমরা যেন আমাদের কর্মস্থলে নিরাপদে যেতে পারি। আমাদের সন্তানদের নিয়ে যেন কোন সংশয় না থাকে। কোন চাঁদাবাজদের খপ্পড়ে পড়তে না হয়। ইতোমধ্যে সে সুফল নারায়ণগঞ্জবাসী ভোগ করছে। সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সেলিম ওসমান দৃঢ়তার সাথে বলেছেন,পর্যায়ক্রমে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রতিটি নারী-পুরুষকে কর্মপযোগী করে তুলছেন। ইতোমধ্যে যে সকল প্রস্তাবণা রয়েছে। ধীরে ধীরে সেগুলো বাস্তবায়ণ হলে আশা করি তিনি তা বাস্তবায়ণে সমর্থ হবেন কেননা ইতিমধ্যে দেখেছি নারায়ণগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সেলিম ওসমানের কার্যক্রম বাস্তবায়ণের জন্য তার পাশে এসে দাড়িয়েছেন। আমরা তাদেরকে সাধুবাদ জানাই। যেহেতু নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রতিটি নারী-পুরুষকে কর্মপযোগীসহ উন্নয়নমূলক কাাজ করতে আশা ব্যাক্ত করছেন সেহেতু আমি অনুরোধ জানাবো প্রতিটি মহল্লা থেকে ৫/৬ জন সামাজিব,কর্মঠ,সৎ যারা স্বার্থবিহীন সংসদ সদস্যের মনের ইচ্ছা পূরণে আগ্রহী রয়েছে তাদেরকে সুযোগ করে দেয়া। তাদেরকে আগ্রহী করে তুলতে সক্ষম হলে কোন অনুদানই প্রশ্নবিদ্ধ হবেনা। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি মহল্লায় উন্নয়নমূলক যে কোন দানস্বত্ত্ব গ্রহণ করবে। এমনি আগ্রহের কথা অনেকেই জানিয়েছেন। যে কোন মহল্লা থেকে ৫/৬জনকে খুঁজে নেয়া তেমন কঠিন কোন কাজ নয়। বর্তমান সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান যেভাবে নিজস্ব অর্থায়নে বিাভন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন বাংলাদেশে বিরল ঘটনা। আমরা দেখেছি নির্বাচন আসলে সামাজিক কাজে ঝাপিয়ে পড়তে। সরকারি অনুদানগুলো নির্বাচনের আগে ব্যায় করে মানুষের দৃািষ্ট আকর্ষ করতে চায়। বাংলাদেশে এমন কোন প্রমাণ আছে কিনা আমার জানা নেই যে,একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর পরই নিজস্ব তহবিল হতে কোটি কোটি টাকা ব্যায় করে উন্নয়নমূলক বাজ করতে। সেলিম ওসমান বাংলাদেশে এক উদাহরণ স্বরূপ। নারায়ণগঞ্জে বিরল ঘটনা রাজনৈতিক দলের  নেতৃবৃন্দ থেকে ব্যবসায়ীগণ সদা সর্বদা দূরে থাকতে স্বচ্ছ্যবোধ করে যাতে তাদের টাকা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি না হয়। এবার দেখা যায় ভিন্নরূপ। ব্যবসায়ীগণ নিজ ইচ্ছায় স্বতঃস্ফুর্তভাবে সাংসদ সেলিম ওসমানকে উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এসেছেন। নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জের বন্দরবাসী স্বাচ্ছ্যন্দে নদী পারাপারের স্বার্থে নৌ-যান নির্মাণ করে তাদের যাতায়াতের সুব্যবস্থা’র উদ্যোগ নিয়েছেন। নৌ-যানটিতে ৪২ সিট হয়ে রয়েছে। বিশেষ করে স্কুল-কলেজের মেয়ে গার্মেন্টসের মহিলাকর্মীগণ নিরাপদে নদী পারপার করতে পারবে। যার সুফল কিছু দিনের মধ্যে নগর/বন্দরবাসী ভোগ করবে। আমাদের সন্তানরা পরিবারের কোন সদস্য সু চিকিৎসার জন্য এবং উন্নতমানের শিক্ষার জন্য ঢাকাতে কোন ইউনিভার্সিটিতে যেতে না হয়। নারায়ণগঞ্জ ক্লাব লিমিটেডের কর্মকর্তাগণ নিজস্ব পরিচালনায় নির্মাণ করে নগর/বন্দরবাসী দীর্ঘ দিনের আশা আকাঙ্খা পূরণে তেমন কোন কঠিন কাজ নয়। যেহেতু পাশে এমপি সেলিম ওসমান রয়েছেন আশা করি এমন মহৎ উদ্যোগ নিয়ে আমাদের সহায়তা করবেন এমনি প্রত্যাশা করছি।

Leave A Reply