কেনিয়ায় ১৮ জুলাই থেকে বিশ্ব বিনিয়োগ সম্মেলন

0
শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আগামী ১৮ জুলাই থেকে কেনিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিশ্ব বিনিয়োগ সম্মেলন বা ওয়ার্ল্ড ইনভেস্টমেন্ট ফোরাম। বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগ ও উন্নয়ন সম্পর্কিত ইস্যু নিয়ে আলোচনা ও এ বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়নের একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈশ্বিক ফোরাম এটি।

জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়নবিষয়ক সংস্থা (আঙ্কার্ড) সম্মেলনের আয়োজন করেছে। এতে বিভিন্ন দেশের মন্ত্রী, বিনিয়োগকারী, ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী এবং আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেবেন।

বাংলাদেশ এই বিশ্ব বিনিয়োগ সম্মেলনে অংশ নেবে। সম্মেলনে যোগ দিতে কেনিয়া যাচ্ছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এ লক্ষ্যে ১৭ জুলাই তিনি নাইরোবির উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। ১৮ থেকে ২১ জুলাই নাইরোবির কেনিয়া ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের বিনিয়োগ সম্মেলনে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে গৃহীত এজেন্ডা-২০৩০ এর বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনা হবে। এতে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনের সিদ্ধান্তকে বাস্তবে রূপায়নের জন্য জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ, অর্থায়ন ও প্রযুক্তি স্থানান্তরের বিষয়ে কার্যকর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগ ও উন্নয়ন সম্পর্কিত ইস্যু নিয়ে আলোচনা ও এ বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়নের একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈশ্বিক ফোরাম হচ্ছে বিশ্ব বিনিয়োগ সম্মেলন। এতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিল্পমন্ত্রী বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নীতি নির্ধারক, ব্যবসায়ীক নেতৃবৃন্দ, বিনিয়োগকারী ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নির্বাহীদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। এ ছাড়া আমির হোসেন আমু এ ফোরামে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সম্ভাবনা এবং বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত সুবিধাদি তুলে ধরবেন।

পাশাপাশি তিনি ইন্টারন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট আয়োজিত ‘ডেভলপমেন্ট অব সাউথ-সাউথ প্রিন্সিপালস্ অন ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টমেন্ট ফর সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট’ এবং ‘বিনিয়োগ এবং উদ্যোক্তা উন্নয়ন’ শীর্ষক উচ্চ পর্যায়ের দু’টি গোল টেবিল আলোচনায় অংশ নেবেন।

ব্যাপক সম্প্রচারের মাধ্যমে এ ফোরাম বিনিয়োগের লক্ষ্যস্থল হিসেবে বিশ্বের ব্যবসা ও বাণিজ্য নেতৃবৃন্দের কাছে বাংলাদেশের পরিচিতি বাড়াতে সহায়তা করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

শিল্পমন্ত্রীর ২২ জুলাই দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

Leave A Reply