আকবর নগরে টেটাযুদ্ধে আহত ১০

0
শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

ফতুল্লার আকবরনগরের প্রভাব বিস্তারকে  কেন্দ্র করে সামাদ আলী খালেক মাতব্বর ও  মোক্তার মমতাজ গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষে ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার সকালে বক্তাবলীর চর আকবরনগর এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। টেঁটাবিদ্ধ হয়ে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের ঢাকা  মেডিকেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে মমতাজ গ্রুপের সুজন (২৪) নামের এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়। বাকি আহতদের মধ্যে খালেক, সিয়াম, সোহেল, ইমরান, বিপ¬ব ও মোহাম্মদ আলীর নাম জানা  গেছে। সংঘর্ষের পর  থেকে এলাকায় থমথম অবস্থা বিরাজ করছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা  গেছে, বক্তাবলীর আকবর নগর গ্রামে সামাদ আলীর সঙ্গে  মোক্তার বাহিনীর আধিপত্য বিস্তারকে  কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। বুধবার বিকেলে  কেরানীগঞ্জ থানা এলাকার চর আকবরনগর এলাকায় খালেক মাতব্বরের মালিকনাধীন একটি ইটভাটার জমি মাপা নিয়ে দুই গ্রুপের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় খালেক মাতব্বরসহ তার  ছেলে সুরুজ্জামানকে মারধর করা হয়।

এরই সূত্র ধরে গতকাল সকাল ১০টায় সামাদ আলীর  লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে  মোক্তার বাহিনীর সদস্য মমতাজের  লোকজনদের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে  মোক্তার বাহিনীর  লোকজন একত্রিত হয়ে সামেদ আলী বাহিনীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং উভয় গ্রুপে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় গ্রুপের লোকজন  দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ওই হামলায় শুরুতে কয়েকটি বসত ঘর ভাংচুর করার পর দুই পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামালউদ্দিন এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি ঘটে ফতুল্লা ও সিরাজদিখান থানার সীমান্তবর্তী এলাকায়।

শেয়ার করুনShare on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0Print this pageEmail this to someoneShare on Tumblr0

Leave A Reply