সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশের উপর হামলায় আহত ২

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ৫ম দিনে রোববার তাদের শহরের কর্মসূচি পালন করতে দেখা না গেলেও সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড়ে কর্মসূচি পালন করতে দেখা গেছে। সকাল থেকেই শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের ইউনিফর্ম পড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে চলাচলকারী গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা ও শৃঙ্খলভাবে চলতে বাধ্য করছে চালকদের। দুপুরে কাগজপত্র পরীক্ষা নামে শিক্ষার্থীরা পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। হামলায় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়। এছাড়া শিক্ষার্থীরা মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-হোমনা রুটে বিআরটিসি বাস ও কুমিল্লাগামী একটি বাসে ভাংচুর চালায়।
শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে শহরে কোন কর্মসূচি পালিত না হলেও সিদ্ধিরগঞ্জে গতকাল কর্মসূচি পালন করছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড়ে রোববার সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে চলাচলর বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের লাইসেন্সসহ যানবহানের কাগজপত্র পরীক্ষা করতে থাকে। একই সময় শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে চলাচলরত যানবাহনগুলোকে শৃঙ্খলভাবে চলাচল করতে বাধ্য করে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা থেকে ডেমরা থানা পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যান শিমরাইল মোড় আসে। পিকআপ ভ্যানটি ডেমরা থানায় যাওয়া সময় মাদানীনগর এলাকায় পৌঁছলে একদল শিক্ষার্থী পিকআপ ভ্যানটি থামিয়ে কাগজপত্র দেখতে চায়। এসময় তাদের কাছে কাগজপত্র দেওয়ার পর হঠাৎ করে কয়েকজন শিক্ষার্থী পিকআপ ভ্যানে লাঠি দিয়ে হামলা চালিয়ে গ্লাস ভাংচুর করে। এ সময় শিক্ষার্থীরা পুলিশ ভ্যান চালক কনস্টেবল সুনীল এবং আরেক কনস্টেবল ফরহাদকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। হামলার খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারীদের কাউকে পায়নি।
এদিকে দুপুর সাড়ে ১২ টায় একই মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-হোমনা সড়কের বিআরটিসি একটি বাসে (ঢাকা মেট্টো ব-১১-৫১৭৯) ভাংচুর করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।
অপরদিকে দুপুর ১২ টায় ঢাকা-কুমিল্লাগামী একটি বাস সানারপাড় এলাকায় পৌঁছালে শিক্ষার্থীরা চালকের কাছে গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চায়। চালক কাগজ না দেখিয়ে গাড়ি চালালে শিক্ষার্থীরা ঢিল ছুঁড়ে গাড়ির কয়েকটি গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে। দুপুর পৌনে ১ টায় চিটাগাংরোড মোড়ে অবস্থান নিলে পুলিশ তাদেরকে সরে যেতে বলে। এতে শিক্ষার্থীরা পুলিশের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ সেখান থেকে সরে যায়। শিক্ষার্থীরা পরবর্তীতে আবারও মহাসড়কে যানবাহনের কাগজপত্র পরীক্ষা করতে থাকে। একই সময় তারা মহাসড়কে চলাচলরত পরিবহনগুলোতে শৃঙ্খলভাবে চলতে বাধ্য করে।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার জানান, দুপুর সোয়া ১২টার দিকে শিমরাইল মোড়ে ডেমরা থানার একটি পিকআপ ভ্যানে শিক্ষার্থীদের পোষাক পড়ে বহিরাগতরা হামলা চালিয়ে গ্লাস ভাংচুর করে। তবে ঘটনাস্থলে কাউকে পাওয়া যায়নি।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.