শহর ও বন্দরে আগুনেও সেলিম ওসমান, পানিতেও সেলিম ওসমান

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আগুন ও পানি দুটি বিষয়ের মধ্যে বিস্তর তফাৎ। কিন্তু রোববার ২ জুলাই নারায়ণগঞ্জে এই দুটি জিনিসের সমস্যার সমাধানে ছুটে গিয়েছেন একই ব্যক্তি। রোববার দুপুরে প্রথমেই ফতুল্লায় ‘রাসেল গার্মেন্টে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে দ্রুত সেখানে ছুটে যান। সরেজমিনে ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে কথা বলে দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার ব্যবস্থা গ্রহন করেন। রাসেল গার্মেন্ট থেকে বের হয়ে তিনি ছুটে যান নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বন্দর এলাকার ২৫নং ওয়ার্ডবাসী পানি সমস্যার সমাধানে। যেখানে তিনি দুটি স্থানে ব্যক্তিগত অর্থায়নে পৃথক দুটি ডিপটিউবওয়েল স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন।

সেই ব্যক্তিটি আর কেউ নন তিনি হচ্ছেন বিকেএমইএ সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।

বন্দরে ২৫নং ওয়ার্ডের দাশেরগাঁও ও লক্ষনখোলা সোমবাইরা বাজার এলাকার মানুষের বিশুদ্ধ খাবার পানির সমস্যা সমাধানে দুটি ডিপটিউবওয়েল স্থাপন কাজের উদ্বোধন করা হয়।

এর আগে ডিজিটালের কল্যানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রাসেল গার্মেন্টে অগ্নিকান্ডের ঘটনা স্থলে এমপি সেলিম ওসামনের উপস্থিত হওয়ার ছবি প্রকাশিত হয়। যার মাত্র ঘন্টা খানেক সময় পরেই বন্দরে ডিপটিউবওয়েল স্থাপন কাজের উদ্বোধন শেষে হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ঘাট দিয়ে ফেরী যোগে শহরে ফিরে আসেন এমপি সেলিম ওসমান। এসময় ফেরীতে থাকা সাধারণ মানুষদের বলতে শোনা গেছে একটু আগেই ফেসবুকে দেখেছি এমপি সাহেবকে আগুন লাগা গার্মেন্টে গেছেন। এখন আবার বন্দরে টিউবওয়েল উদ্বোধন করে ফিরছেন। এতো দেখা যায় আগুনেও সেলিম ওসমান আবার পানিতেও সেলিম ওসমান।

প্রসঙ্গত গত ৩১ জুন বন্দরের সোমবাইরা বাজার এলাকায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৪,২৫,২৬ নং ওয়ার্ড এলাকায় বিদ্যমান বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট সমাধানে এলাকাবাসীর সাথে মত বিনিময় করেন এমপি সেলিম ওসমান। সে সময় তিনি অত্র এলাকা গুলোর পানির সমস্যা সমাধানের জন্য এক মাসের সময় চেয়ে নেন। সমস্যা সমাধানে ওইদিনই উত্তর লক্ষনখোলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাঙ্গনে নিজস্ব অর্থায়নে একটি ডিপটিউবওয়েল স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন। মত বিনিময় অনুষ্ঠিত হওয়ার মাত্র ১ দিন পরেই উক্ত ওয়ার্ডে আরো ২টি স্থানে ডিপটিউবওয়েল স্থাপন কাজের উদ্বোধন করা হলো। যার ফলে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ৩টি স্থানে বসবাসকারী কয়েক হাজার পরিবারের বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা নিশ্চিত হবে।

উদ্বোধন শেষে তিনি বন্দরের ২২নং ওয়ার্ড এলাকায় অবস্থিত রাজবাড়ি এলাকায় শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র এবং সেন্ট্রাল খেয়াঘাটের পূর্ব পাড়ে ময়মনসিংহপট্টিতে নির্মিত ফেরী ঘাটের পরিদর্শন করেন।

এ সময় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, বিকেএমইএ এর সহ-সভাপতি(অর্থ) হুমায়ন কবির খান শিল্পী, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, বন্দর উপজেলার নির্বার্হী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহীন মন্ডল, পরিদর্শক(তদন্ত) হারুন অর রশিদ, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকু, মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ১৮নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হান্নান সরকার, ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ, ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনায়েত হোসেন সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.