ছিন্নমূল শিশুদের ঈদ আনন্দ এনে দিলেন পারভিন ওসমান ও আজমেরী ওসমান

0
বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম
যাদের ঘর নেই, বাড়ি নেই, থাকার নেই কোনো নির্দিষ্ট জায়গা। ফুটপাতই যাদের একমাত্র ঠিকানা। তাদের কিনা আবার ঈদ উৎসব। যাদের না আছে নতুন জামা, না আছে ভালো খাবারের ব্যবস্থা। আর ঈদে হাতে নতুন টাকার সালামি পাওয়া তো স্বপ্নের ব্যাপার। তবে এ সপ্ন বাস্তবায়নে এগিয়ে এলেন প্রয়াত সাংসদ নাসিম ওসমান পরিবার। ঈদের আনন্দ নিম্নবিত্ত ও ছিন্নমূল পথশিশুদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে এ উদ্যোগটি নেন তনয় আজমেরী ওসমান।
গতকাল বিকালে শহরের অভিজাত মার্কেট থেকে সে সকল  ছিন্নমূল শিশুদের নতুন পোশাক কিনে দিলেন তিনি। এসময় পারভিন ওসমান ও আজমেরী ওসমানের সহধর্মিনী সাবরিনা ওসমান জয়া উপস্থিত থেকে নিজ হাতেই তাদেরকে কাপড় পড়িয়ে দেয়। এছাড়াও আড্ডা ও খেলায় কাটিয়ে দেন সারাবেলা। সবশেষে তাদেরকে দেয়া হয় ঈদের সালামি। ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে দেয়া হয় বাসায় আসার অগ্রিম নিমন্ত্রনও।
এদিকে নতুন জামা কাপড় পেয়ে তাদের গায়ে লেগেছে ঈদের আনন্দের হাওয়া। কেন আনন্দে মেতেছে তারা? কীসের এত আনন্দ? জানতে চাইলে আব্দুল নামে এক ছিন্নমূল শিশু প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আরে স্যার বোঝেন না। ঈদের সময় তো মানুষ খুশি থাকে। এইডাই বুঝেন না! আমাগো তো আইজ ঈদ। এমন জামা কাপড় তো জীবনেও কিন্না পড়ি নাই। হের লাইগ্যাই আমরা খুশি।
ঈদ উপলক্ষে গ্রামের বাড়িতে কেন যাওনি? জানতে চাইলে একেক জনের কাছ থেকে একেক কথা জানা গেল। কারও বাড়িই নেই। জন্ম হয়েছে কোনো বস্তিতে। কারো বাড়ি ছিল ভেঙে বিলীন নদীতে। দুই একজন আছে যারা তাদের বাবা-মায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে না অনেক দিন। কে কোথায় আছে তাও জানেন না অভিভাবকরা। আবার কারো থাকলেও একবেলা খাওয়ারই পয়সা হয়না তাদের।
বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, নাসিম ওসমান স্মৃতি দুস্থ্য ও জনকল্যান ফাউন্ডেশনের সভাপতি তরিকুল ইসলাম লিমন, নাছির, জাতীয় ছাত্র সমাজ জেলার আহ্বায়ক শাহাদাত হোসেন রুপু, মহানগরের আহ্বায়ক শাহআলম সবুজ, তারেক হাসান তূর্জ প্রমুখ।

Leave A Reply