ফতুল্লায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে অস্ত্র ছিনতাইকারী পারভেজ নিহত

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় অস্ত্র ছিনতাই মামলার আসামি পারভেজ ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। তিনি পুলিশের সোর্স হিসেবেই এলাকাতে পরিচিত ছিলেন।

বুধবার ভোররাতে দাপা আলামিন নগর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পারভেজ দাপা এলাকার সোবহান মিয়ার ছেলে। ফতুল্লা থানায় একটি অস্ত্র খোয়ানো ও পরে সেটা উদ্ধারের ঘটনার মামলার আসামি তিনি।

পুলিশের ভাষ্য, রাতে ছিনতাইকারী দুই গ্রুপের গোলাগুলির সময়ে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হলে ত্রিপক্ষীয় গোলাগুলিতে ক্রসফায়ারে পরে মারা যান পারভেজ। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুই রাউন্ড গুলিভর্তি একটি রিভলবার ও তিনটি ছোরা উদ্ধার করা হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, রাতে আলামিন নগর এলাকাতে ছিনতাইকারীদের দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির খবর পায় পুলিশ। পরে পুলিশের একটি দল সেখানে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে ছিনতাইকারীরা। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে ঘটনাস্থলে পারভেজ বন্দুকযুদ্ধে মারা যান।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ১৩ মে রোববার রাতে এএসআই সুমন কুমার পালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ফতুল্লা রেলস্টেশন রোড এলাকার একটি বালুর মাঠে ডিউটিরত ছিলেন। গভীর রাতে কনস্টেবল সোহেল রানার সঙ্গে থাকা একটি চাইনিজ রাইফেল খোয়া যায়। পরদিন দাপা বালুর মাঠের পাশের একটি ডোবার পাশ থেকে রাইফেলটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানার এএসআই সুমন কুমার পাল, তিনজন কনস্টেবল মাসুদ রানা, আরিফ ও সোহেল রানাকে দায়িত্বে অবহেলার জন্য প্রত্যাহার করা হয়।

ওই ঘটনায় পরে সুমন পাল বাদী হয়ে পারভেজসহ তিনজনকে আসামি করে সোমবার রাতেই ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেন। এতে অভিযোগ করা হয়, পারভেজ ওই অস্ত্রটি লুট করেছিল।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.