নারায়ণগঞ্জের ৪ ও ৫ আসন’র সীমানার পুনর্বিন্যাস

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসন থেকে ৪ ও ৫নং আসন দু’টির সীমানা পুনর্বিন্যাস করে চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সোমবার (৩০ এপ্রিল) দুপুরে আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সচিব।

নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, ‘আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় আসন চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এবার ২৫টি আসনে পরিবর্তন আনা হয়েছে।’

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ি চূড়ান্ত গেজেট থেকে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ)-৪ আসন থেকে কিছু অংশ নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে। যা ইতিপূর্বে এসব অংশ ৪ এর সাথে সংযুক্ত ছিলো। এ ক্ষেত্রে বর্তমানের খসড়া অনুযায়ে ফতুল্লা থানার কিছু অংশ নারায়ণগঞ্জ ৫ এ সংযুক্ত হবে। যা আগে ছিলো সদর ও বন্দর থানার সম্মিলনে নারায়ণগঞ্জ ৫ তা এখন নারায়ণগঞ্জ (সদর-বন্দর-ফতুল্লা)-৫ হয়েছে।

এর ফলে নারায়ণগঞ্জ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ)-৪ আসনের ভোটার সংখ্যাও আগের তুলনায় অন্তত ৫৫ হাজার থেকে ৬০ হাজারের মতো কমে গিয়ে তা নারায়ণগঞ্জ (সদর-বন্দর-ফতুল্লা)-৫ আসনে যুক্ত হয়ে যাচ্ছে।

সূত্র মতে, প্রকাশিত গেজেট অনুযায়ি নারায়ণগঞ্জ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ)-৪ আসনের পরিধি হচ্ছে সদর উপজেলার আলীর টেক ও গোগনগর ব্যতিত অন্য ৫টি ইউনিয়ণ যথাক্রমে কুতুবপুর, এনায়েত নগর, ফতুল্লা, কাশিপুর, বক্তাবলী এবং সিটি করপোরেশনের ১ থেকে ১০ নং ওয়ার্ড। এর পূর্বে ১১-১৬ নং ওয়ার্ডে কিছু অংশ এই আসনে যুক্ত ছিলো। যা এখন ৫ এ অন্তর্ভূক্ত হচ্ছে।

অপরদিকে, নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের পূর্বের সীমানার সাথে নতুন করে সদর উপজেলা তথা ফতুল্লা থানারও কিছু অংশ যুক্ত হচ্ছে। এরমধ্যে সিটি করপোরেশনের ১১ থেকে ১৬ নং ওয়ার্ড’র কিছু কিছু অংশ। যা আগে ৪ এর সাথে সংযুক্ত ছিলো। ফলে এখন থেকে নারায়ণগঞ্জ ৫ আসন হবে সদর-বন্দর থানার পাশাপাশি ফতুল্লা থানার কিছু অংশও যুক্ত হচ্ছে যা সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড। এর ফলে এই আসনে আগের ভোটার সংখ্যার সাথে নতুন করে ৫৫ থেকে ৬০ হাজার বেশি যুক্ত হবে।

এদিকে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাসের জন্য নির্বাচন কমিশন গত ১৪ মার্চ ৩৮টি আসনের সীমানা পরিবর্তন এনে ৩০০ আসনের খসড়া গেজেট আকারে প্রকাশ করে। এর পক্ষে-বিপক্ষে দাবি ও আপত্তি গ্রহণ করে কমিশন। এতে আপত্তি জানিয়ে ৪০৭টি এবং ইসির পক্ষ সমর্থন করে ২২৪টি আবেদন জমা পড়ে। এসব আপত্তির পর গত শনিবার থেকে শুনানি শুরু হয়। শুনানি শেষে সোমবার চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করে ইসি।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জের ১, ২ ও ৩ আসনে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। একক উপজেলা কেন্দ্রিক ওই তিনটি আসন পূর্বেকার রূপেই রাখা হয়েছে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.