লাঙ্গলবন্দ স্নান নির্বিঘ্নে করতে বন্দর উপজেলা প্রশাসন’র কার্যক্রম শুরু

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আগামী ২৪ ও ২৫ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধাণ ধর্মীয় উৎসব লাঙ্গলবন্দ স্নান নির্বিঘ্নে করতে ব্রহ্মপুত্র নদীর কচুরিপানা পরিস্কার শুরু করেছে বন্দর উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) সকালে লাঙ্গলবন্দ ব্রিজের নীচ থেকে কচুরিপানা পরিস্কারের মাধ্যমে কার্যক্রমের শুরু করেন বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী।

এ সময় বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী বলেন, ঐতিহাসিক লাঙ্গলবন্দের পূণ্য¯œান সকল পূণ্যার্থীর কাছে নির্বিঘœ করতে আমরা বদ্ধ পরিকর। এ লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। আজ ব্রহ্মপুত্র নদীর কচুরিপানা পরিস্কার শুরু করা হলো। লাঙ্গলবন্দ ব্রিজ থেকে সাবদী পর্যন্ত নদীর সকল কচুরিপানা আগামী ২০ মার্চের মধ্যে পরিস্কার করে ফেলা হবে। সেই সাথে কচুরিপানা প্রবেশের পথগুলিতে বাধ দেওয়া হবে যাতে নতুন করে কচুরিপানা ঢুকতে না পারে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন, বন্দর উপজেলা প্রশাসন, সকল জনপ্রতিনিধি, ¯œান কমিটিসহ সকলের সহযোগিতায় এবার সফলভাবে পূণ্য¯œান সমাপ্ত করতে পারবো বলে আশা রাখি।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন বলেন, নারায়ণগঞ্জ ধর্মীয় সম্প্রিতির শহর। এখানে সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে উৎসব পার্বণ উপভোগ করে থাকে। তাই অতীতের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এবারেও লাঙ্গলবন্দের পূন্য স্নাণ উৎসবমূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মুসাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন, ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক উত্তম সাহা, মুসাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী সদস্য খোদেজা খানম, শাহনাজ বেগম, নিলুফা বেগম প্রমূখ।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.