নারায়ণগঞ্জ গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জ গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১২ মার্চ) সকালে নারায়ণগঞ্জের আমলাপাড়াস্থ কলেজ প্রাঙ্গণে এই নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় আনোয়ার হোসেন বলেন, এই মাসে জাতির জনক বাংগালী জাতির শ্রেষ্ঠ অহংকার জাতির গর্ব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অন্যায় অত্যাচারে বিরুদ্ধে লড়াই সংগ্রামে অবর্তীণ হওয়ার মধ্যে দিয়ে রেসকোর্স ময়দানে ব্রজ্যকন্ঠে ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চে স্বাধীনতা সংগ্রামের ঘোষনা করেন।

তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন সাহসী নারী।যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে তিনি বাংগালী জাতিকে কলংকমুক্ত করেছেন।

পিতা মাতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহবান জানিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মা বাবার দোয়া না থাকলে লেখাপড়া করে শুধু বড় হওয়া যায় না। পিতা মাকার নির্দেশ অনুযায়ী চলে নিজকে এদেশের দক্ষ নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন।

এসএমসি সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও প্রধান শিক্ষক শীতল কুমার তাদের বক্তব্যে প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষন করে স্কুলের ১’শ বছরের পুরাতন ভবনটি ভেংগে নতুন ভবন নির্মাণের দাবী জানান ।

নারী শিক্ষা প্রসারে এবং স্কুলটির শিক্ষার মান উন্নয়নের কারিগর প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক মহয়সী নারী হেনা দাসের স্মৃতিচারণ করে প্রধান অতিথি আনোয়ার হোসেন মাদক, জঙ্গী ও ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে সকলকে রুখে দাড়ানোর আহবান জানিয়ে শিক্ষার্থীদের নিজ সন্তানের মতো গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আনুরোধ জানান। স্কুলের ক্লাশ শুরুর পূর্বে সমাবেশে ৩ মিনিটি স্বাধীনতার ইতিহাস সর্ম্পকে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে আহবান জানান তিনি। শিক্ষা ক্ষেত্রে এ সরকার সফল দাবী করে তিনি নিজ সন্তানদের প্রতি নজর রাখার জন্য অভিবাবকদের প্রতি আহাবান জানিয়ে নারী-পুরুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠায় সর্বক্ষেত্রে পিতার পরিচয়ের পাশাপাশি মাতার পরিচয়ে সন্তানদের পরিচিত হওয়ার বিষয়টি শেখ হাসিনার অবদান বলে বক্তব্যে উল্লেখ্য করেন।

এসএমসি’র সভাপতি এড. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়নগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। উক্ত স্কুলের শিক্ষক রিজন আহমদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, প্রধান শিক্ষক শীতল কুমার, শিক্ষক প্রতিনিধি জলিল উদ্দিন, অভিবাবক প্রতিনিধি হাবিবুর রহমান টগাসহ প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে প্রভাতী শাখার নবীণ শিক্ষার্থীদের হাতে রাখি বেধে বরণ করে নেয় স্কুলের শিক্ষকরা। পরে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে নারায়ণগঞ্জের একটি ব্যান্ড দলের গানে উৎসবে মেতে ওঠে শিক্ষার্থীরা।

 

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.