মাশুকুল ইসলাম রাজীব কারা মুক্ত না হওয়ায় তৃনমূল ছাত্রদলের ক্ষোভ প্রকাশ

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় দায়ের করা রাজনৈতিক মামলায় আটককৃত নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজীব কারাগার মুক্ত না হওয়ায় মুক্তির দাবি ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তৃনমূল ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ।

তৃনমূল জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ জানান, মাশুকুল ইসলাম রাজীব একজন জিয়াউর রহমানের আদর্শের সৈনিক। তার নেতৃত্বে আমরা জেলা ছাত্রদল বিএনপির সকল আন্দোলন সংগ্রামে অংশগ্রহন করি। তিনি আমাদের আইডল। তার মত একজন মেধাবী ছাত্র নেতাকে এই অবৈধ সরকার মিথ্যা মামলা দিয়ে কারগারে কনডেম সেলে আটক করে রেখেছি। এটি মানবতা বিরোধী ও গনতন্ত্র বিরোধী কাজ। তার সাথে এমন অন্যায় আচরনের প্রতি গভীর ক্ষোভ প্রকাশ করছি ও সেই সাথে তার মুক্তি দাবি জানাচ্ছি।

রাজিবকে জেলগেটে দেখতে যাওয়া জেলা ছাত্রদল নেতা মোঃ রুবেল হোসাইন জানান, জেল খানা হলো সবার নিরাপদ স্থান । কিন্তু আজ বিএনপি করে বলে নেতাকর্মীরা জেলহাজতে এক মানবতাহীনভাবে জীবন যাপন করতে হচ্ছে ‌। কারন তারা ফাঁসি বা সাজাপ্রাপ্ত আসামি না হয়েও কনডম সেলে তাদেককে রাখা হয়েছে । এই সব কনডম সেলে সাধারণত ফাঁসি বা সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের রাখার কথা । আমি জামিন পাওয়া কয়েকজন নেতাকর্মীদের মুখ থেকে তাই শুনেছি। তিনি আরো জানান, আমি রাজিব ভাইকে দেখতে গেলে তিনি বলেন আমি সহ নেতাকর্মীদের কে ফাঁসি কিংবা সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের জন্য সেই স্থান সেই কনডম সেলে আমাদেরকে রাখা হয়েছে । একটি অবাধ কক্ষ যেখানে কোন ফ্যান নেই এবং আলোর মুখ দেখি না । শুধুমাত্র একটি ছোট খেকড়ি আছে । তাই আমি বলতে চাই কোন ক্ষমতার বলে বা কোন আইনের সংবিধানের মাধ্যমে সাধারণ কয়েদিদেরকে এই কনডম সেলে রাখা হয়েছে ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজিব একজন মেধাবী ছাত্র নেতা। তার বাবা আদমজী জুট মিলের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও তার মা নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বার একাডেমীর স্কুলের একজন শিক্ষিকা। ভারতের বেঙ্গলর ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন সে । নারায়ণগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীর সম্মানিত সদস্য। সময়ের পরিবর্তনে তিনি রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। পরে নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজের ছাত্র ছাত্রী সংসদ নির্বাচনে ভিপি নির্বাচিত হয়ে মুল রাজনীতিতে আসেন । পরে ২০১৩ সালের মাঝামাঝি সময়ে জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক নির্বাচিত হন। বর্তমানে সে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আছেন। জেলা তৃনমূল ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের কাছে তিনি আইডল। বিএনপির প্রতিটি আন্দোলনে সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন তিনি । ২০১৫ সালের পাঁচই জানুয়ারি বিএনপির আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন সে। নারায়ণগঞ্জ সদর , সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানায় একাধিক রাজনৈতিক মামলার আসামি হয়ে গ্ৰেফতার হয়ে কারাগার ভোগ করেন ।

Leave A Reply