স্বপ্ন দেখতে হবে, নিজেকে বিকশিত করার স্বপ্ন: রাব্বী মিয়া

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

বাউল সম্রাট লালন ফকিরের উদ্ধৃতিকে উল্লেখ করে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো: রাব্বী মিয়া বলেছেন, সময় গেলে সাধন হবে না। শিক্ষাজীবনে প্রতিটি মূহুর্ত খুব গুরুত্বপূর্ণ। সময়কে কাজে লাগিয়ে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে। স্বপ্ন দেখতে হবে, নিজেকে বিকশিত করার স্বপ্ন। সে স্বপ্নকে বাস্তবে রূপান্তর করতে কঠোর পরিশ্রমও করতে হবে।

বুধবার (১৪ ফেব্রæয়ারি) দুপুরে ফতুল্লার কাশীপুরে হাটখোলা উচ্চ বিদ্যালয়ে আধুনিক বিজ্ঞানাগার উদ্বোধন ও বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-বিজ্ঞানাগারের স্বপ্নদ্রষ্টা ও অর্থায়নকারী বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে সহ-অধ্যাপক ড. মো: ইকবাল হোসেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: উজ্জ্বল হোসাইন।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোমেন সিকদার, আলহাজ্ব নাজির হোসেন সিকদার, জাফর উল্লাহ, মেজবাহউদ্দিন দুলাল, আব্দুল আলীম, ফিরোজ মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রব জহর, ইউপি সদস্য মেজবাউর রহমান পলাশ, সংরক্ষিত ইউপি সদস্য এড. মরিয়ম আক্তার, সংরক্ষিত ইউপি সদস্য হেলেনা আক্তার। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-স্কুলের প্রধান শিক্ষক সামসুল হক।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, এখনকার সময়ে সমাজ থেকে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, আদব ও গুরুজনদের প্রতি সম্মান হারিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু একজন পরিপূর্ণ সফল মানুষ হতে হলে তাকে পরিবার থেকে শিষ্টাচার শিখতে হবে। পরিবারের স্বীকৃতি-ই বড়। পরিবারের স্বীকৃতি পেলে সে সমাজ-রাষ্ট্রে স্বীকৃতির পথে এগিয়ে যাবে। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে নিজের শিক্ষাজীবনের গল্প তুলে ধরে রাব্বী মিয়া আরও বলেন, আমি পেরেছি, তোমরাও পারবে। নিজেদের মধ্যে শিক্ষার প্রতিযোগিতা গড়ে তুলবে। এটা তোমাদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবার প্রেরণা দিবে।

জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের তাঁকে প্রশ্ন করতে বলেন। সেরা প্রশ্নকারীকে তিনি একটি ল্যাপটপ উপহার দিবেন বলেও ঘোষণা দেন।

পরে জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেন। এর আগে তিনি বিজ্ঞানাগারটির ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন। কিছুক্ষণ তিনি বিজ্ঞানাগারটি ঘুরে দেখে পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন।

Leave A Reply