মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে মাসদাইরে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের মানব বন্ধন

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

ন্যূনতম মজুরি ১৮০০০ টাকা করার দাবিতে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার উদ্যোগে আজ সকাল ৮ টা থেকে ৯ টা নারায়ণগঞ্জ পঞ্চবটি মাসদাইর চৌধুরী কমপ্লেক্স এর সামনে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরীফের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, বিসিক শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সাইদুর, গাবতলী পুলিশ লাইন শাখার সাধারণ সম্পাদক হাসনাত কবীর, সহ-সভাপতি শহীদুল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন, খোরশেদ আলম।
নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার গার্মেন্টস শ্রমিকদের নতুনভাবে মজুরি নির্ধারণের জন্য নি¤œতম মজুরি বোর্ড গঠন করেছে। ন্যূনতম কত টাকা মাসে আয় করলে মানসম্মত জীবনযাপন করা যায়, তার একটা মাপকাঠি না থাকলে শ্রমিকদের মজুরি নির্ধারণ করা মালিক এবং সরকারের দয়ার ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। মজুরি কোন দয়া বা করুণা নয়। মজুরি শ্রমিকের অর্জিত অধিকার। দেশের প্রবৃদ্ধি বাড়ছে বলে সরকার গর্ব করে প্রচার করছে। সরকারের দাবি মাথাপিছু আয় বেড়ে দেশ এখন নি¤œমধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। তাহলে দেশে রপ্তানি আয়ের প্রধান উৎস গার্মেন্টস শ্রমিকরা সস্তা শ্রমিক হিসেবে বিবেচিত হবে কেন?
নেতৃবৃন্দ বলেন, মজুরি নির্ধারণের ক্ষেত্রে শ্রম আইনের ১৪১ ধারায় আছেÑ’জীবনযাপন ব্যয়, জীবনযাপনের মান, উৎপাদন খরচ, উৎপাদনশীলতা, উৎপাদিত দ্রব্যের মূল্য, মুদ্রাস্ফীতি, কাজের ধরণ, ঝুঁকি ও মান, ব্যবসায়িক সামর্থ্য, দেশের ও সংশ্লিষ্ট এলাকার আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় বিবেচনা করতে হবে।’ আজকে চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম, বাসাভাড়া, যাতায়াত, শিক্ষা-চিকিৎসা, কাপড়চোপড়, অতিথি আপ্যায়ন, তেল-সাবান, জুতা-স্যান্ডেলের খরচ, মোবাইল খরচ, ঈদ-পূঁজায় বাড়ি যাওয়া ইত্যাদি বিবেচনা নিলে একজন শ্রমিকের মজুরি ১৮ হাজার টাকার কম মজুরি হলে তা মানবিক জীবনযাপনের উপযোগী হবে না। নেতৃবৃন্দ নি¤œতম মজুরি বোর্ডের কাছে পোশাক শিল্পে শ্রমিকের ন্যূনতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা নির্ধারণের দাবি করেন।

Leave A Reply