হকার ইস্যুতে সংঘর্ষের ঘটনায় তিন সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

হকার ইস্যুতে সংঘর্ষের ঘটনার তদন্ত সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবারের ঘটনা তদন্তের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জসিমউদ্দিন হায়দারকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা জানান।

তিনি আরো বলেন, জেলা প্রশাসন থেকে তাদেরকে সাতদিনের মধ্যে রিপোর্ট প্রদানের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে ।

এদিকে, নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভি এবং সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান পৃথক পৃথক ভাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। এসময় তারা উভয় উভয়কে পাল্টাপাল্টি দোষারোপ করে বক্তব্য রাখেন।

মঙ্গলবারের ঘটনায় নারায়নগঞ্জের ১২জন সাংবাদিক আহত হওয়ার ঘটনায় নারায়নগঞ্জ প্রেস ক্লার ও জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

মঙ্গলবারের এই ঘটনার পর বুধবার কোন হকার শহরের ফুটপাতে বসেনি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাকার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে শহরের গুরুত্বপুর্ন স্থানে।

অপরদিকে, মেয়র আইভী ও সাংসদ সেলিম ওসমানের সঙ্গে আলোচনার পর হকারদের বসার এ অনুমতি দেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার সংঘর্ষের পর বুধবার বিকেল ৩টার দিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ডেকে নেয়া হয় হকারদের। এসময় জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া ও জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক হকারদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় অনুমতিক্রমে চাষাঢ়া থেকে মেট্রো সিনেমা হল চত্বর পর্যন্ত হকাররা বিকেল ৫টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বসতে পারবে। তবে কোনোভাবেই বঙ্গবন্ধু সড়কে কোনো হকার বসা যাবে না।

উল্লেখ্য, গত ২৫ ডিসেম্বর সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসন যৌথ উদ্যোগে নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কসহ বিভিন্ন সড়ক থেকে হকার উচ্ছেদ করে। এরপর থেকেই ফুটপাতে বসার দাবি জানিয়ে লাগাতার আন্দোলন করে আসছিল হকাররা। এরপর নারায়ণগঞ্জের ফুটপাতে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে সাংসদ শামীম ওসমান ও মেয়র আইভী সমর্থকদের সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ উভয় গ্রুপের অর্ধ শতাধিক আহত হয়। প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়াসহ দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ তিন শতাধিক শর্ট গানের ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর চাষাঢ়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

Leave A Reply