বিএনপিন্থী আইনজীবী প্যানেলের সভাপতি ও সা:সম্পাদককে হুমকীর অভিযোগ

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সভাপতি এড. জহিরুল হক ও সাধারণ সম্পাদক এড. আব্দুল হামিদ ভাষানীকে পুলিশের পরিচয় ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারী) প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগে এ তথ্য পাওয়া যায়। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী পৃথক দুটি অভিযোগে উল্লেখ করেন, আসন্ন জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনকে সামনে রেখে আদালত পারায় বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের সাথে যখন প্রচার প্রচারোনায় ব্যস্ত সময় পার করছে। ঠিক তখনি বাসায় ও অফিসে সাদা পোশাক দারী পুলিশের পরিচয় কিছু লোক তাদেরকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এ ঘটনায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন। সেই সাথে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর আহবান করেন বিষয়টি যেন আমলে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়।

এ বিষয় সভাপতি পদ প্রার্থী এড. জহিরুল হক’কে একাধিক বার ফোন দিলেও তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি।

এ বিষয়টি সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী এড. আব্দুল হামিদ ভাষানী বলেন, আমি ডিসি, এসপি ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর বিষয়টি অবজ্ঞত করেছি সেই সাথে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার আহবান জানিয়েছি। তিনি আরও বলেন, এই নির্বাচনে আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের প্যানেল থেকে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার অপরাধে ক্ষমতাশীনদের কাছ থেকে ৫ হাজার টন চাপের মধ্য দিয়ে দিন অতিবাহিত করছি। এখনো বেঁেচ আছি আমার পরিবার পরিজনদের দোয়া ও আল্লাহর রহমতে। তারা আমাকে নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়ানোর জন্য প্রতিনিয়তই হুমকী দিয়ে আসছে। যখন অনেক নেতাই তাদের হুমকীর সম্মুখীন হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহন করেন নাই। তখন তারা আমার কথা মাথায় রাখেননি। এখন যখন প্রার্থী হয়েছি তখন হুমকীতে কাজ না হওয়ায় মোটা অংকের টাকাও অফার করছেন সড়ে দাড়ানোর জন্য। কিন্তু কোন লাভ হবে না যেহেতু আইনজীবী ও দলের জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহন করেছি মৃত্যু ছাড়া এই নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়াবো না আল্লাহ চান তো। তিনি আরও বলেন, যেখানে আইনজীবীদের নির্বাচনে তাদের এতো প্রভাব দেখাছে সেখানে জাতীয় নির্বাচনে কি করবে আল্লাহ জানেন। আমি হুমকী দাতাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, আজকে যে মেয়ে হিসেবে সংসারে আছে কালকে তাকে শাশুরী হতে হবে।

এ বিষয় আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, আইনজীবীদের নির্বাচন সমাজের খুব এলি ফেয়ারী নির্বাচন, যে নির্বাচনে এ ধরনের নঘœ হস্তক্ষেপ এটা এই সরকারের অগনতান্ত্রিক চরিত্রের বর্হিপ্রকাশ। আইনজীবীদের নির্বাচনে প্রার্থীদের এভাবে বসিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া চরম অন্যায় কাজ।

Leave A Reply