উন্নয়নে কেউ বাঁধা দিলে জনগণকে নিয়ে রাজপথে নামবো-আইভী

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বেদখল হয়ে যাওয়া সব জমি, পুকুর, মাঠ ও খাল পুনরুদ্ধার করে সেখানে বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর জিমখানা উন্মুক্ত মঞ্চ প্রাঙ্গণে আয়োজিত আলোচনা ও জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন তিনি।

মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, উন্নয়ণমূলক প্রকল্প বাস্তবায়নের পথে কেউ বাধা হয়ে দাঁড়ালে তিনি জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে নামবেন। এ সময় তিনি বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে জানান, আগামী ছয় মাসের মধ্যে নগরীকে ময়লা-আবর্জনামুক্ত করা হবে। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের জালকুঁড়ি এলাকায় ময়লা ফেলার স্থানে মিনি বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন, এক সপ্তাহের মধ্যে অবৈধ মাসদাইর বাজার উচ্ছেদ, চলতি বছর আলী আহাম্মদ চুনকা পৌর পাঠাগার মিলনায়তনসহ এ বছরই নগরীর জিমখানা এলাকায় রাজধানীর হাতিরঝিলের আদলে নির্মাণাধীন বহুল প্রতীক্ষিত লেক ও পার্কের উদ্বোধন করা হবে।

তিনি জানান, শহরের যানবাহন চলাচলের সুবিধার্থে রেললাইনের পাশ দিয়ে একটি বিকল্প সড়ক নির্মাণ করা হবে এবং শহর থেকে বাস টার্মিনাল সরিয়ে নেওয়ার পরিকলপনা রয়েছে। এর ফলে যানজট কমে যাবে।

মেয়র আইভী জানান, আগামী একমাসের মধ্যে রহমতউল্লাহ ইনস্টিউটের অবৈধ ভবন ভেঙে দেওয়া হবে এবং শহরের ফুটপাত হকারমুক্ত রাখা হবে।

তিনি জানান, হকার ফুটপাত থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে। তাদের পুনর্বাসন করার জন্য হকার্স মার্কেট করা হয়েছে। সেখানে হকারদের বসতে হবে।

মেয়র আইভী জানান, সিটি করপোরেশনে প্রতি বছর ৩২ শতাংশ কর আদায় হয়ে থাকে। আগামী এক বছরের মধ্যে তা ৯০ শতাংশে উন্নীত করা হবে। বিভিন্ন প্রকল্পে মামলাজনিত কারণে উন্নয়ন কাজে বিলম্ব হলেও বিগত পাঁচ বছরে ৬০০ কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে। চলতি বছর ৩০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ শেষ হয়ে গেছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের জনতার মুখোমুখি ও উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছাড়াও ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply