পাইরেসির গুঞ্জনে নবাব

0

বিজয় বার্তা ২৪.কম

একটা সময় ছবি হলে যেতে না যেতেই সেটি পাইরেট হয়ে ছড়িয়ে পড়তো সিডির দোকানে। সেই পাইরেট কপি নিয়ে চলতো ব্যক্তিগত সিডি ও ডিস ব্যবসা। মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতেন ছবির প্রযোজকরা। দিনে দিনে সিডি ব্যবসায়ের বিলুপ্তি ঘটলে পাইরেসির অভয়ারণ্য হয়ে উঠলো মোবাইল।
নানা তৎপরতা ও ডিজিটাল পদ্ধতিতে সিনেমা প্রদর্শন করার ফলে পাইরেসির প্রতিবন্ধকতা অনেকটাই স্তিমিত ছিলো। কিন্তু চলতি ঈদে আবারো আলোচনায় পাইরেসি।
মাত্র কয়েক দিন আগেই পাইরেসি হয়েছে শাকিব-অপু অভিনীত চলচ্চিত্র ‘রাজনীতি’। এবার শাকিব খান-শুভশ্রী অভিনীত যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র ‘নবাব’ পাইরেসির কবলে পড়লো শোনা যাচ্ছে। মোবাইল ক্যামেরায় ধারণকৃত ছবিটি এখন নাকি পাওয়া যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।
তবে এ খবরকে গুজব বলেই দাবি করলেন‌ ‌‘নবাব’র বাংলাদেশি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন। তিনি বলেন, ‌‘জাজ ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রেক্ষাগৃহে ছবি চালায়। এখানে পাইরেসি হওয়ার কথা না। তাছাড়া আমরা নিজেরা এখনো কোনো পাইরেট কপি কোথাও পাইনি। কোনো সাইটের লিংকও দেখছি না। তাই এই পাইরেসির সত্যতা নিয়ে কথা বলা মুশকিল। যদি কোনো লিংক বা কপি পাওয়া যেত আমরা অবশ্যই অ্যাকশনে যেতাম।আমার কাছের একজন বলেছেন যে তিনি একটি পাইরেটেড কপি দেখেছেন ‘নবাব’র। তবে তার প্রিন্ট খুবই বাজে। এবং সেটি দেখে অনুমান করা যায় কোনো একটি সিনেপ্লেক্স থেকে ছবিটি পাইরেসির শিকার হতে পারে। তবে আমি নিজে সেটি দেখিনি। তবুও পাইরেসির খবর যেহেতু রটেছে আমরা বিষয়টি খোঁজ নিচ্ছি। সত্যি এমনটি হলে এবং কাউকে অভিযুক্ত হিসেবে শনাক্ত করা হলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘নবাব’-এ অভিনয় করেছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান, কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শুভশ্রী। প্রথমবারের মতো এই দুই তারকা জুটি হয়ে কাজ করলেন। এছাড়াও ছবিটিতে অভিনয় করেছেন অমিত হাসান, সব্যসাচী, রজতাভ দত্ত, খরাজ মুখার্জী প্রমুখ।
জয়দীপ মুখার্জী পরিচালিত ছবিটি প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও এসকে মুভিজ। ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে গত ঈদে। ছবির গল্পে নকলের অভিযোগ থাকলেও এটি ব্যবসায়িকভাবে সফল হয়েছে বলে দাবি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবিটি ২৮ জুলাই কলকাতায় মুক্তি পাবে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.