স্বামীর বন্ধুদের ধারা স্ত্রী গণধর্ষন

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

ফতুল্লায় স্বামীর অসুস্থতার মিথ্যা খবরে স্ত্রী কে ডেকে এনে গণধর্ষন করে স্বামীর বন্ধুরা। ধর্ষক আলামিন (২৯) ও খোরশেদ (২৮) কে গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় পুলিশ থানার মাসদাইর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করেন । এঘটনায় ধর্ষিতা গৃহবধুর স্বামী বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন মামলা নং (৪৬)।

পুলিশ জানায়, থানার এনায়েত নগর ইউনিয়নের বিসিক সংলগ্ন আট্রলাটা প্লাজা নামক একটি বাড়ীতে ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস করেন পোশাক শ্রমিক জয়নাল আবেদীন (৩১) ও তার স্ত্রী (২৫)। গত ২মে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে একটি তুচ্ছ ঘটনায় ঝগড়া -বিবাদ হয় এবং এই কারনে স্ত্রীর সাথে অভিমান করে স্বামী জয়নাল তার আদি নিবাস ফরিদপুর জেলার রাজবাড়ী থানার বসন্তপুরে চলে যায় । পরবর্তীতে জয়নালের স্ত্রী তার বাপের বাড়ী যশোরের ঝিকরগাছায় চলে যান , এই দম্পতির পূর্ব পরিচিত এবং জয়নালের বন্ধু আলামিন ও খোরশেদ এই বিষয়টি অবগত ছিল বলে বাদী তার এজাহারের উল্লেখ্য করেন । গত ১০ মে দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২ টার দিকে ধৃত  আলামিন জয়নালের স্ত্রীর মোবাইল ফোনে কল দিয়ে জানায় “ভাবী আপনার স্বামী জয়নাল হঠাৎ করিয়া অসুস্হ হয়ে পড়েছে সে আমাদের বাসায় রয়েছে আপনি তাড়া তাড়ি ফতুল্লায় চলে আসেন এবং আমার সাথে দেখা করেন । স্বামীর বন্ধু ও তাদের পূর্ব পরিচিত আলামিনের কথা শুনার পরে ভুক্তভোগী গৃহবধু তার স্বামী জয়নালের মোবাইল ফোনে কল দেন এবং তখন স্বামীর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়ার পর। যশোর থেকে রাত ৭ টার বাসে চড়ে পরের দিন ভোর সকাল ৬ টার দিকে গৃহবধু নাঃগঞ্জের চাষাড়ায় এসে পৌছাঁয় এবং স্বামীর খোজঁ জানার জন্য সে লম্পট আলামিন কে ফোন দেন। এসময় আলামিন চাষাড়ায় গিয়ে গৃহবধুর সাথে দেখা করেন এবং তাকে বিভিন্ন ধরনের কথা বলে সময় কাল ক্ষেপন করতে থাকেন । এর পরে আলামিন গৃহবধু কে বলেন তার অসুস্হ স্বামী তার ঘনিষ্ট বন্ধু খোরশেদের বাসায় আছেন বলে সকাল আনুমানিক পৌনে ৮ টার দিকে গৃহবধু কে নিয়ে আলামিন বন্ধু খোরশেদের ভাড়া বাড়ী উওর   মাসদাইরের নিশাত ভিলায় আসেন । সুএে আরো জানা গেছে, লম্পট খোরশেদের বাড়ী অন্য লোকজন বিভিন্ন পোশাক কারখানায় কাজ করে তারা তাদের কর্মস্হলে চলে যাওয়া বাড়ীতে খোরশেদ একাই ছিলেন  এবং আলামিন এই বিষয়টি জানতে পেরেই গৃহবধু কে খোরশেদের বাড়ীতে নিয়ে আসেন । খোরশেদের বাড়ীতে গৃহবধু এসে তার অসুস্হ স্বামীর খোজঁ চান এবং তখন স্বামীকে দেখতে না পেয়ে সে ঘর থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করলে লম্পট আলামিন ও লম্পট খোরশেদ গৃহবধু কে মারধর করে, গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক প্রথমে আলামিন এবং পরে খোরশেদ গণধর্ষন করেন বলে এজাহারে উল্লেখ্য করা হয় । এবং ধর্ষনের পর দুই ধর্ষক আলামিন ও খোরশেদ গৃহবধু কে এই বিষয় মুখ খুললে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয় এবং গৃহবধু কে সোজা তার বাপের বাড়ী যশোর চলে যেতে বলেন এবং প্রান বাচাঁর ভয়ে গৃহবধু তখনি বাসে চড়ে চলে যায়। সুএে আরো জানায়, এর পরে গৃহবধু তার স্বামীর বাড়ীতে গিয়ে স্বামীর সাথে দেখা করে এসব বিষয় অবহিত করেন। এবং এর পরেই গত কাল বুধবার গৃহবধুর স্বামী বাদী হয়ে ফত্ল্লুা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ধর্ষক আলামিন ও খোরশেদের বিরুদ্ধে । ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজী এনামুল হকের নেতৃত্বাধীন পুলিশের একটি টীম বুধবার রাতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আলামিন ও খোরশেদ কে মাসদাইর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেন । ধৃত আলামিন ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর এলাকার শাহজাহান মিয়ার ছেলে ,খোরশেদ উওর মাসদাইর এলাকার নিশাত ভিলার ভাড়াটিয়া আব্দুল কাদির মিয়া ছেলে বলে পুলিশ জানায়। এঘটনায় গৃহবধুর স্বামী বাদী হয়ে ধর্ষক আলামিন ও খোরশেদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যার নং ৪৬

Leave A Reply