সৌদি প্রবাসী স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

বন্দরে পরকিয়া প্রেমিক গৃহশিক্ষক সোহেল ভূইয়া কর্তৃক সৌদি প্রবাসী স্ত্রী নিপা রহমান (৩৫)কে কেরোসিন তেল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গত সোমবার রাতে নিহত গৃহবধূ নিপা রহমানের খালাত ভাই গোলাম নবী রনি বাদী হয়ে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ৩৭(১১)১৭। ধারা- ৩০২ দঃবিঃ। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ বছর পূর্বে বন্দর থানার আলীনগর এলাকার সৌদি প্রবাসী আতাউর মিয়ার সাথে মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার দক্ষিন কুড়মিরা এলাকার আব্দুল কাদের বেপারী মেয়ে নিপা রহমানের ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর আব্দুল্লাহ ও মারুফ নামে ২টি ছেলে সন্তান রয়েছে। বড় ছেলে আব্দুল্লাহ (১২) এবারে পিএসসি পরিক্ষার্থী। পরিক্ষা শুরু হওয়ার ২ মাস পূর্বে প্রবাসী স্ত্রী নিপা আক্তার তার ছেলে আব্দুল্লাহকে বাসায় এসে প্রাইভেট পড়ানোর জন্য বন্দর উইলসন রোড ভূইয়াবাড়ী এলাকার রহমত উল্ল্যাহ ভূইয়া মিয়ার ছেলে সোহেল ভূইয়াকে দায়িত্ব দেয়। ওই সুযোগে গৃহশিক্ষক লম্পট সোহেল প্রবাসীর স্ত্রী নিপা রহমানের সাথে পরকিয়া সম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে গৃহশিক্ষক বহুদিন সেখানে রাত্রী যাপন করে। মায়ের পরকিয়ার বিষয়টি ছেলেদের নজরে পরে। এবং এ নিয়ে তাদের ২ জনের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। এর ধারাবাহিকতায় গত ১১ নভেম্বর সকাল ৯টায় রান্না ঘরে ভিতরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারত্মক ভাবে আহত হয় প্রবাসীর স্ত্রী নিপা রহমান। পরে তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় প্রেমিক সোহেল ভূইয়া ও তার মা উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার ওই দিন রাত ১০টায় সে মৃত্যু বরণ করে। পরে বিষয়টি শাহাবাগ থানা পুলিশ অবগত হয়ে শাহাবাগ থানার ৭২৮ নং জিডিমূলে প্রবাসীর স্ত্রীর সুরুতহাল রির্পোট তৈরি করে লাশ ময়না তদন্ত সম্পর্ন করে। এ ঘটনায় বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের হলেও এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত লম্পট গৃহশিক্ষক সোহেল ভূইয়া ও তার মাকে গ্রেপ্তারের সংবাদ জানাতে পারেনি পুলিশ।

 

 

Leave A Reply