সোনারগায়ে চলন্ত বাসে কিশোরীকে ধর্ষনের ঘটনায় আটক ১

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় স্বদেশ পরিবহনের একটি চলন্ত বাসে এক তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) এ ঘটনায় ওই তরুণী বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানার মামলা দায়ের করেছেন।

এর আগে সোমবার (১০ জুন) রাত সাড়ে ১০টায় সোনারগাঁও উপজেলার মেঘনা নিউটাউন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা অভিযুক্ত গাড়ির চালককে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এ ঘটনার পর হেলপার পালিয়েছেন। অভিযুক্ত চালক শামীম মিয়া সোনারগাঁও উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের নানাখী মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুর রব মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, কিশোরগঞ্জের ওই তরুণী গজারিয়া উপজেলার এলাকার একটি কারখানায় অপারেটর হিসেবে চাকরি করেন। ঈদের ছুটি শেষে সোমবার (১০ জুন) কিশোরগঞ্জ থেকে রাত ৯টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তান এসে গজারিয়া ফেরার জন্য স্বদেশ পরিবহনের একটি বাসে উঠেন। পরে সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় এসে বাসের সব যাত্রী নেমে যান। ওই তরুণী যাত্রীদের সঙ্গে নেমে যাওয়ার সময় অভিযুক্ত চালক শামীম তাকে মেঘনা ঘাট নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে আষাঢ়িয়ারচর এলাকায় গিয়ে হেলপারের কাছে ডাইভিং ছেড়ে দিয়ে ওই তরুণীকে জোর করে গাড়ির পেছনের সিটে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মেঘনা নিউটাউন শপিং কমপ্লেক্সের ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে মার্কেটের সামনে গাড়ির জন্যে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় তারা স্বদেশ পরিবহনের বাসটি (ঢাকা মেট্টো-ব-১১-৭২৬৫) দেখে থামার সংকেত দিলে গাড়ি আরও দ্রুতগতিতে চালানো হয়। ওই বাস থেকে এক তরুণীর বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনতে পান ব্যবসায়ীরা।

এ সময় স্থানীয় জনতা বাসটি ধাওয়া করলে এক পর্যায়ে বাস থামিয়ে হেলপার পালিয়ে যান। পরে ওই তরুণীকে বাস থেকে উদ্ধার করে অভিযুক্ত চালক শামীমকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা।

নউটাউনের ব্যবসায়ী জসিমউদ্দিন জানান, মেয়ে কণ্ঠে বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনে আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাসের সামনে মানব দেয়াল তৈরি করি। বাসে উঠে ধর্ষণ চেষ্টারত অবস্থায় চালককে আটক করি এ ফাঁকে সুযোগ বুঝে হেলপার পালিয়ে যায়। আমরা আনন্দিত যে অন্তত একটি ধর্ষণ রুখতে পেরেছি। এমনও হতে পারতো ধর্ষণ শেষে মেয়েটিকে হত্যা করে ফেলে যেত। ঐক্যবদ্ধ জনতা চিৎকার করে বলেন, আমরা এ ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

এস আই তাওহিদ উল্লাহ জানান, স্বদেশ বাসে ধর্ষণের খবর পেয়ে মেঘনা নিউটাউনে গিয়ে জনতার হাত থেকে ধর্ষক ও গাড়ি আটক করি। তিনি জানান, ধর্ষক শামীম মিয়া নানাখি মধ্যপাড়া গ্রামের আ. রব ভূইয়ার ছেলে। কিশোরির বাড়ি কিশোরগঞ্জ। সে মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার বালুকান্দি ইউনিয়নের মেম্বারের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, ধর্ষণে অভিযোগে ধর্ষক চালক ও বাসটি থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

0 Shares
শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.