সেলিম ওসমান ও আইএফআইসি ব্যাংকের সহযোগীতায় স্বাবলম্বী শেফালী মরিয়ম

0
বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম
নিজের ঐকান্তি প্রচেষ্টা আর যদি সাথে কারো কাছ প্রয়োজনীয় সহযোগীতাটুকু পাওয়া যায় ভাগ্যের উন্নয়ন তখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। তেমনি নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান ও আইএফআইসি ব্যাংককে সহযোগী হিসেবে পাশে পেয়ে বন্দর ইউনিয়ন তিনগাঁ এলাকার শেফালী বেগম গড়ে তুলেছেন একটি বাড়ি একটি খামার। আর মুছাপুর এলাকায় মরিয়ম আক্তার গড়ে তুলেছেন একটি বাড়ি একটি কারখানা।
বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই দুপুরে প্রচন্ড গরমের মাঝেও পায় হাটা পথ পেরিয়ে তাদের বাসায় উপস্থিত হয়ে পরিদর্শন করেছেন শেফালী বেগমের গরুর খামার, পল্টি ফার্ম ও মৎস খামার এবং মরিয়ম আক্তারের ইলেকট্রনিক পন্য তৈরি ইসমাইল ইলেকট্রনিক্স কারখানাটি। এ সময় সংসদ সদস্যের সাথে ছিলেন আইএফআইসি ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ শাখার ম্যানেজার জুলফিকার হোসেন, বন্দর শাখার ম্যানেজার শেখ মোহাম্মদ শাহীন, কর্মকর্তা নুরুজ্জামান।
সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে এমপি সেলিম ওসমান শেফালী বেগমকে একটি বাছুর সহ দৈনিক ১৭ লিটার দুধ দেওয়া একটি গাভী প্রদান করেছেন। অপরদিকে সংসদ সদস্য নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৩০০ পিছ এলইডি লাইট ক্রয়ের অর্ডার প্রদান করেছেন।
এ সময় এমপি সেলিম ওসমান শেফালী বেগমের একটি বাড়ি একটি খামার এবং মরিয়ম আক্তারের একটি বাড়ি একটি কারখানার গড়ে উঠার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পথচলার খবরাখবর নেন।
দুজন নারী উদ্যোক্তাকেই অর্থঋণ দিয়ে সহায়তা করেছেন আইএফআইসি ব্যাংক। উক্ত ব্যাংক শেফালী বেগমকে মালিকানাধীন ফ্যাসেলেটিস টের্ডাসকে ২০লাখ টাকা এবং মরিয়ম আক্তারের মালিকানাধীন ইসমাইল ইলেকট্রক্সিকে দু’মেয়াদে ৮ লাখ টাকার আর্থিক ঋণ প্রদান করেছেন।
এসময় এমপি সেলিম ওসমান শেফালী বেগম এবং মরিয়ম আক্তারের কাছে তাদের কোন রকম সমস্যা রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তখন তাদের প্রয়োজনীয় মূলধনের স্বল্পতার কথা সংসদ সদস্যের কাছে তুলে। পরে তিনি আইএফআইসি ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ শাখার ম্যানেজার জুলফিকার হোসনকে তাদেরকে আরো কিছু মূলধন ঋণ দেওয়ার ব্যাপারে অনুরোধ রাখেন।
পরে ব্যাংক ম্যানেজার তাদের উভয়ের লেনদেনের ব্যাপারে খোজঁ নিয়ে দেখেন তারা নিয়মিত ব্যাংকের টাকা পরিশোধ করে আসছেন এবং লেনদেনের ব্যাপারে যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। তিনি তাদের ব্যবসা প্রসারের জন্য প্রয়োজনে আরো আর্থিক ঋন দেওয়ার ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছেন।
এ ব্যাপারে এমপি সেলিম ওসমান বলেন, আমি নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টি করতে এখন পর্যন্ত যতগুলো উদ্যোগ নিয়েছি এর মধ্যে এদুটি উদ্যোগে আমি সব থেকে বেশি সফলতা পেয়েছি। আজকে এই দুজন নারী স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি তাদের মাধ্যমে আরো কিছু নারীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে। এতে করে আমি বেশ আনন্দিত। শেফালী বেগম এবং মরিয়ম আক্তারের মত অন্যান্য নারীরাও যদি এমন উদ্যোক্ত হতে আগ্রহী হয় তাহলে আমাদের পক্ষ থেকে আমরা সর্বাত্মক সহযোগীতা করবো।
উল্লেখ্য, এমপি সেলিম ওসমানের সুপারিশে ২০১৭ সালের ৮মার্চ আইএফআইসি ব্যাংক মরিয়ম আক্তারকে ৫লাখ টাকার লোন প্রদান করেন। যা দিয়ে তিনি ইসমাইল ইলেকট্রনিক্স নামে প্রতিষ্ঠানটির বাণিজ্যিক ভাবে অগ্রসর হয়।
প্রসঙ্গত, এমপি সেলিম ওসমান নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টি করতে ৫০০ জন শিক্ষিত বেকার তরুনীকে একটি করে সেলাই মেশিন ও অফেরত যোগ্য ৫ হাজার টাকা করে চলতি মূলধন প্রদান করেন, এছাড়াও ৪৮৪জন শিক্ষিত তরুন-তরুনীকে উদ্যোক্ত হিসেবে গড়ে তুলতে প্রত্যেককে অফেরত যোগ্য ২৫ হাজার টাকা করে চলতি মূলধন প্রদান করেছেন। নাসিম ওসমান মডেল হাইস্কুলের ১০০জন দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীর মায়েদের ১টি করে সেলাই মেশিন প্রদান করে তাদেরকে উদ্যোক্ত হিসেবে গড়ে তোলার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।
0 Shares
শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.