শুভ্র হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় কলেজ ছাত্র শাহরিয়াজ মাহমুদ শুভ্র হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানার শনির আখড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা পেশাদার ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে। শুভ্রর কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা ছিনাইয়ের পর তাকে হাত পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে খাদে ফেলে দিয়েছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা স্বীকার করেছে। বুধবার দুপুরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তাদের কার্য্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আসামীদের হাজির করে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানায়।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে ইয়ামিন ওরফে আল আমিন, জালাল, জুয়েল ও রবিন। এদের মধ্যে জালাল রাজধানীর যাত্রবাড়ি এবং অপর তিনজন নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকার বাসিন্দা। তাদের কাছ থেকে জব্দ করা হয়েছে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি সিএনজি অটো রিকশা, দুইটি ছুরি ও চারটি মোবাইল ফোন।
সংবাদ সম্মেলনে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মফিজুল ইসলাম জানান, নিহত শাহরিয়াজ শুভ্রর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের কলের সূত্র ধরে এই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে, ঘটনার দিন ভোর রাত সাড়ে তিনটায় শাহরিয়াজ রাজধানীর মিরপুরে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়ে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের শিবু মার্কেট এলাকা থেকে একটি সিএনজি অটো রিকশায় উঠে। এসময় ওই ছিনতাইকারীরা যাত্রীবেশে সিএনজিতে উঠে চলন্ত অবস্থায় শাহরিয়াজকে অস্ত্র ঠেকিয়ে তার মোবাইল ফোন ও নগদ ৬শ’ ৩৫ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে শাহরিয়াজের হাত পা বেঁধে ও গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে ভূঁইগড় এলাকায় রাস্তার পাশে খাদে ফেলে দিয়ে যায়।
গত ৯ সেপ্টেম্বর ভোর রাতে নারায়ণগঞ্জ সরকারী তোলারাম কলেজের বিবিএ অনার্স তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র ফতুল্লা থানার লালপুর এলাকার কামাল সিদ্দিকীর ছেলে শাহরিয়াজ মাহমুদ শুভ্র বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন শুক্রবার সকালে পুলিশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ভূঁইগড় এলাকা থেকে একটি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। শনিবার সকালে শাহ রিয়াজ শুভ্র’র পরিবার মর্গে গিয়ে লাশ শনাক্ত করে। এ ঘটনায় শুভ্র’র বাবা কামাল সিদ্দিকী বাদি হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামী করে ফতুল্লা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Leave A Reply