শহরে শ্রমিকদের ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন

0
বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম
সরকারি উদ্যোগে লাভজনক দামে ধান কিনে কৃষক ও দেশ বাঁচানো এবং বকেয়া মজুরিসহ পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে আজ বিকেল ৫ টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।  বাম জোট ও বাসদ জেলা সমন¦য়ক নিখিল দাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সিপিবির জেলা সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ফোরাম সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সভাপতি মাহমুদ হোসেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, কৃষক ধানের বাম্পার ফলন ঘটিয়ে ন্যায্য দাম না পেয়ে আজ তাদের মাথায় বাজ পড়েছে। যেখানে মন প্রতি উৎপাদন খরচ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা সেখানে ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকায় ধান বিক্রি করতে হয়েছে। কৃষি মন্ত্রী স্বীকার করেছে রাজনৈতিক প্রভাবের কারণে সরকার নির্ধারিত দামে মনপ্রতি ১০৪০ টাকা করে কৃষক ধান বিক্রি করতে পারছে না। দায়ী মধ্যসত্ত্বভোগীরা সবাই সরকারি দলের সাথে সম্পৃক্ত। ইউনিয়নে ইউনিয়নে ক্রয়কেন্দ্র খুলে সরকার খোদ কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয় না করায় এই সমস্যা তৈরী হয়েছে। সরকার ১২ লাখ টন চাল কেনার ভুল সিদ্ধান্ত না নিয়ে যদি মৌসুমের শুরুতেই ১৮ লাখ টন ধান কিনতো তাহলে কৃষক আজ পথে বসতো না। যেখানে ধান উৎপাদনে বাম্পার ফলন অথচ সরকারের ভুলনীতিতে শুধু হিলি স্থলবন্দর দিয়ে গত দেড় মাসে ভারত থেকে আমদানী হয়েছে প্রায় ১৫ হাজার মেট্রিক টন চাল। অর্থাৎ বাজারে কম দামে ভারতীয় চাল বিক্রি হচ্ছে ফলে চাতাল মালিকরা কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনছে না। কৃষক বান্ধব বলে দাবি করলেও বর্তমান সরকার কৃষক মারার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকলের শ্রমিকরা পাট শিল্পকে রক্ষা শ্রমিকদের দু-তিন মাসের বকেয়া মজুরি প্রদান, ২০১৫ সালের মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, বরখাস্ত শ্রমিকদের পুনর্বহাল অবসরে যাওয়া শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ, দুর্নীতি বন্ধ করে পাট মৌসুমে পাট ক্রয়ের জন্য পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ করাসহ ৯ দফা দাবিতে আন্দোলন করছে। সরকার দাবি মানছে না। সরকারি পাটকলগুলির শত শত একর সম্পত্তি আত্মসাৎসহ বেসরকারিখাতে ছেড়ে দেয়ার জন্যই এই সরকারি ষড়যন্ত্র চলছে। সে জন্যই একদিকে রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল বন্ধ হচ্ছে, অন্যদিকে বেসরকারি উদ্যোগে ২৮৫টি পাট কল তৈরী হয়েছে। মৌসুমে ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা মন দরে সময়মতো কৃষকের থেকে পাট না কিনে ২৫০০ থেকে ৩০০০টাকায় ব্যবসায়ী ও ফড়িয়াদের কাছ থেকে পাট কিনে সরকার পরিকল্পিত ভাবে লোকসান ঘটাচ্ছে।
নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে লাভজনক দামে খোদ কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনে কৃষকদের বাঁচানো এবং পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবি মেনে নিয়ে পাট শিল্পকে রক্ষা করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।
0 Shares
শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.