রূপগঞ্জে দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বাতিল

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বর্তমান সভাপতির সেচ্ছাচারিতায় দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বাতিল করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও প্রার্থীদের মাঝে। সম্পূর্ণ অবৈধ ও অন্যায় ভাবে নির্বাচন বাতিল করায় অভিভাবক ও প্রার্থীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)’র বরাবর একটি অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিভাবক সদস্য প্রার্থী আফজাল হোসেন (মালি) জানান, তারা দাউদপুর পুটিনা উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অভিভাবক সদস্য প্রার্থী ও ভোটার। বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ শেষ হবে ৪ এপ্রিল ২০১৯ইং। আর মেয়াদ শেষ হওয়ার পুর্বে নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে গত ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ইং তারিখে ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। এরপর মনোনয়নপত্র আহবান ও জমাদান করা হয় ১৮ থেকে ২০ ফেব্রুয়ারী । মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ তারিখ ঘোষণা করা হয় ২০ ফেব্রুয়ারী। মনোনয়নপত্র বাছাই ও বৈধ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয় ২৩ ফেব্রুয়ারী । মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ও অভিভাবক ভোটারদের চুরান্ত প্রার্থীর তালিকা নতুন অভিভাবক প্রার্থীদেরকে স্কুল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক এক কপি করে ২৬ ফেব্রুয়ারী দেয়া হয়। এছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সমস্ত প্রার্থীর একত্রে মতামতের ভিত্তিত্বে প্রতীক দিয়ে নির্বাচন করার সম্মতি প্রকাশ করায় প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ ওমর ফারুক ভুইয়া প্রত্যেক প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ দেন। এছাড়া প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ ওমর ফারুক ভুইয়া শিক্ষক প্রতিনিধি ৩ জনের কোন প্রতিদ্বন্ধি না থাকায় ঐ ৩ বৈধ প্রার্থী শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের নির্বাচিত ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে প্রতীক বরাদ্দকৃত অভিভাবক প্রার্থীরা নির্বাচনের জন্য প্রতীকসহ পোষ্টার ও লিফলেটসহ নানা ভাবে প্রচারণা চালান। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো ৩ মার্চ।
এদিকে, হঠাৎ করে বর্তমান কমিটির সভাপতি শহিদুল হক ভুইয়া কর্তৃক স্বাক্ষরিত অভিভাবক ভোটার তালিকা না হওয়ার অজুহাতে গত ৪ মার্চ প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ ওমর ফারুক ভুইয়া নির্বাচন কমিটি না হওয়া বা বাতিল করার নির্দেশনা দেন। উল্লেখ থাকে যে, প্রার্থীদের ভোটার তালিকার মধ্যে বর্তমান প্রধান শিক্ষক কে এম সলিমুজ্জামানের স্বাক্ষর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। যাহা নির্বাচনে বৈধতা পায়।
অভিভাবক প্রার্থী এবং ভোটারদের অভিযোগ, বর্তমান কমিটিকে অন্যায় ভাবে টিকিয়ে রাখার লক্ষ্যে বর্তমান কমিটির সভাপতি শহিদুল হক ভুইয়া নির্বাচন বাতিলের চক্রান্ত করছেন। যাতে বিদ্যালয়ের উন্নয়ন ব্যহত হয়।
ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন হওয়া ও বাতিল না করে ভোটের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের সুযোগ দিয়ে উক্ত বিদ্যালয়ের উন্নয়ন ও শিক্ষার মান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার দাবি জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগমের বরাবর একটি অভিযোগ দেন তারা।
এ বিষয়ে বর্তমান কমিটির সভাপতি শহিদুল হক ভুইয়া বলেন, নিয়ম অনুযায়ী ভোটার তালিকা হয়নি বিধায় নির্বাচন বাতিল করা হয়েছে। সেচ্ছাচারিতার অভিযোগটি সঠিক নয়।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ওমর ফারুক বলেন, ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক ভোটার তালিকা অনুমোদিত নয়। তাই নির্বাচন বাতিল করা হয়েছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগম বলেন, এ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। নির্বাচন কেন বাতিল করা হলো, সে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.