রুপগঞ্জে ৩ যুবকের লাশ উদ্ধার

0

মোঃ খোকন প্রধান,বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নাঃগঞ্জ থেকে-রাজধানী ঢাকার ৩ যুবক কে একটি যাত্রীবাহী বাস থেকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়ার পরে তাদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে রুপগঞ্জ থানা উপজেলার পূর্বাচল উপশহরের আলমপুর থেকে। শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে পূর্বাচল উপ শহরের আলমপুর ১১ সেক্টরের সড়কের পাশে স্হানীয় জনতা তাদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় সংবাদ দেয় পরে পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে নাঃগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেন। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে একজনের পকেট থেকে ৬৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে, দুপুরের দিকে নিহতদের স্বজনেরা তাদের মরদেহ সনাক্ত করেন বলে নিশ্চিত করেছে রুপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান। নিহতেরা হলেন রাজধানী ঢাকার মহাখালী এলাকার শহীদুল্লাহর ছেলে মোঃ সোহাগ (৩০), মুগদা এলাকার আঃ মান্নানের ছেলে শিমুল (৩০) এবং একই এলাকার আব্দুল ওয়াহাব মিয়ার ছেলে নূর হোসেন ওরফে বাবু (৩০), এদের মধ্যে শিমুল ও বাবু সম্পর্কে ভায়রা ভাই। পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের যে কোনো এক সময় অজ্ঞাত নামারা ব্যক্তিরা ওই ৩ যুবক কে রুপগঞ্জের পূর্বাচল উপ-শহরের আলমপুর ১১ নং সেক্টরের ব্রীজের পাশের সড়কে গুলি করে তাদের হত্যা করে পরে মরদেহ সেখানে ফেলে পালিয়ে যায়। শুক্রবার সকালের দিকে স্হানীয় লোকজন সেখানে ৩ যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় সংবাদ দেয় পরে পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেন। পুলিশ সুত্রে আরো জানা গেছে যে তাদের প্রত্যেকের মাথা ও শরীরে একাধিক গুলির চিহৃ পাওয়া গেছে, একজনের পকেটে ৬৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং একটি ম্যানিব্যাগও পাওয়া গেছে। এদিকে নিহতের বিরুদ্ধে ক’টি মামলা রয়েছে কোনো কোনো থানায় এবং এরা কি তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী কিন্বা মাদক ব্যবসায়ী কি না সেটি নিশ্চিত করতে পারে নি রুপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান। রুপগঞ্জে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহতদের পরনে প্যান্ট,শার্ট ও গেন্জী পরিহিত দের মরদেহের ছবি ফেসবুকে প্রকাশিত হওয়ার পরে নিহতদের স্বজনেরা শুক্রবার দুপুরের দিকে দেখতে পেয়ে রুপগঞ্জ থানা হয়ে হাসপাতালের মর্গে ছুটেঁ আসেন এবং ৩জনের মরদেহ সনাক্ত করে তাদের পরিবারের লোকজন। মরদেহ সনাক্ত করনের পরে তারা পুলিশ, সাংবাদিকদের কাছে জানায় গত বুধবার নিহতেরা বেড়াতে যাচ্ছিলো দৌলতদিয়া ঘাটে একটি যাত্রীবাহী বাস থেকে তাদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে সাদা পোশাক ধারী কয়েকজন সেখান থেকে তুলে নিয়ে দুটি মাইক্রোবাস এবং একটি গাড়ী যোগে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়, এর পর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলো শুক্রবার ফেসবুকে তাদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ দেখে সনাক্ত করতে রুপগঞ্জ থানা হয়ে হাসপাতালের মর্গে ছুটেঁ আসি এবং তাদের সনাক্ত করি। নিহত যুবক সোহাগের আপন ভাই শাওন জানায়, তার ভাই গত বুধবার বেড়াতে গিয়ে নিখোঁজ হয় এবং ফেসবুকে তার গুলিবিদ্ধ মরদেহের ছবি দেখে হাসপাতালে ছুটেঁ আসি। তিনি জানায় তার ভাই তাদের এলাকায় ফার্ষ্ট ফুড বার্গার এবং স্যাটেলাইট ক্যাবল নের্ট ওয়ার্কের ব্যবসা করেন, তার ১০ বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। এদিকে নিহত শি মূলের স্ত্রী আয়েশা আক্তার আন্নি’র অভিযোগ তার স্বামী শিমূল সহ অন্যরা গত বুধবার বেড়াতে যাচ্ছিল, এসময় দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় তাদের ৩ জন কে যাত্রীবাহী একটি বাস থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে সাদা পোশাক ধারী কিছু লোক আটক করে দুটি মাইক্রোবাস এবং একটি গাড়ী যোগে অজ্ঞাত স্হানে নিয়ে যায় এর পর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলো শুক্রবার দুপুরে ফেসবুকে তাদের গুলিবিদ্ধ মরদেহের ছবি দেখে তাদের সনাক্ত করা হয়। নিহত নূর হোসেন ওরফে বাবুর স্বজনদের মধ্যে তাসফিয়া মনি নামক তার এক বোন জানায়, শুনেছি ডিবি পুলিশ পরিচয়ে একদল সাদা পোশাক ধারী তাদের কে যাত্রী বাহী বাস থেকে তুলে নিয়ে গেছে তবে ওই ডিবি পুলিশ কোন জেলার সেটি আমরা নিশ্চিত হতে পারি নি, নিখোজের পরে আমরা ঢাকার ডিবি অফিসে তাদের খোজঁ করলেও তাদের আটকের কথা কেউ স্বীকার করে নি। সুত্রে জানা গেছে নিহত শিমূল ও নূর হোসেন ওরফে বাবু ঝুটেঁর ব্যবসা করতো, স্বজনদের দাবী নিহতেরা সন্ত্রাসী কিন্বা মাদক ব্যবসায়ী নন কেন তাদের গুলি করে হত্যা করা হয়েছে সেটিও তারা জানে না

শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.