বিবিআইএন বিজনেস এক্সপো শুরু

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

ভারতের শিলিগুড়িতে আজ থেকে শুরু হয়েছে বিবিআইএন বিজনেস এক্সপো। এর আগে গতকাল বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের সমন্বয়ে বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন বাণিজ্য ফোরামের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

কলকাতার ললিত ওবেরয় হোটেলে সার্কভুক্ত চারটি দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ফোরামের উদ্বোধন করা হয়। চার দেশের নামের প্রথম অক্ষর নিয়ে ফোরামটির নাম হয়েছে ‘বিবিআইএন’। এই ফোরামের উদ্যোক্তা ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই)।

ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কর্মাসের ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ ফেডারেশন অব চেম্বার অব কর্মাস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ভুটান চেম্বার অব কর্মাস, ফেডারেল অব নেপাল চেম্বার অব কর্মাসের প্রতিনিধিরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদের নেতৃত্বে বাংলাদেশের ৭০ সদস্যের প্রতিনিধিদল অংশ নেয়। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান।

তিনি বলেন, ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান এই চার অঞ্চলের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে যথেষ্ট বাণিজ্যিক সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় তিনি যৌথ ব্যবসার বিষয়ে জোর দেন।

পশ্চিমবঙ্গের নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরাদ হাকিম উদ্বোধনী বক্তব্যে বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্ককে স্মরণ করে বলেন, আমরা সুসম্পর্ক রক্ষা করে চলেছি এবং অর্থনৈতিকভাবে দুদেশ একই সঙ্গে উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে।

ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কর্মাসের কর্মকর্তা সিদ্ধার্থ বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের প্রতিবছর সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা হয়। এসময় তিনি চা, পাট শিল্পের ক্ষেত্রে দু’দেশের সম্ভাবনা করা তুলে ধরেন।

শুক্রবার সকাল থেকে শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী বিবিআইএন বিজনেস এক্সপো চলবে ১৭ জুলাই পর্যন্ত। এক্সপোতে এফবিসিসিআইয়ের ১৪০ সদস্যের প্রতিনিধিদল অংশ নেয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে  এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি বিবিআইএনভুক্ত দেশগুলোতে ম্যানুফ্যাকচারিং শিল্পের উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এফবিসিসিআই সূত্রে জানা গেছে, বিবিআইএনভুক্ত চার দেশের এক্সপোতে অংশ গ্রহণ করে ৬০টি স্টল। এর মধ্যে এক্সপোতে এফবিসিসিআই অধিভুক্ত বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশন থেকে ৩১টি স্টল অংশ নেয়। বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশন থেকে টেক্সটাইল ও কটন শিল্প, কৃষি ও উদ্ভিদজাত সামগ্রী, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য, দুগ্ধজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল সামগ্রী, অবকাঠামো ও পরিবহনবিষয়ক, কেমিক্যাল ও সার, তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প বিষয়ক, চামড়াজাত পণ্য এবং অটোমোবাইল শিল্পের প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করেন।

জানা গেছে, বাংলাদেশ, ভুটান, ইন্ডিয়া ও নেপালের মধ্যে সার্ক চার্টারের আওতায় বাণিজ্য ও অবকাঠামোগত বাঁধাসমূহ দুর করে আঞ্চলিক সহাযোগিতা আরো বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিবিআইএন বিজনেস ফোরাম গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

চারটি দেশই রাজনৈতিক সদিচ্ছা নিয়ে আন্তঃসীমান্ত যোগাযোগ আরো বৃদ্ধি এবং জ্বালানি, ট্রানজিট ও পানি সম্পদ খাতে সহযোগিতার উদ্যোগ নিয়েছে। বিজনেস ফোরামের উদ্বোধন পরবর্তী সময়ে প্রতিবেশী ৪টি দেশের মধ্যে পারষ্পরিক যোগাযোগ ও দ্বিপাক্ষিক বানিজ্য সম্প্রসারনের পাশাপাশি দেশগুলোর পর্যটন খাত আরো বিকশিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

Leave A Reply