ফতুল্লায় একাধিক শিশু ধর্ষনের দায়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি মাদ্রাসায় ১২ জন শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষণের চেষ্টা ও যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষককে আটক করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার বেলা এগারোটা থেকে দুপুর পর্যন্ত মাহমুদপুর এলাকায় বায়তুল হুদা ক্যাডেট মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে প্রধান শিক্ষক মাওলানা আল আমিনকে এসব অভিযোগে আটক করা হয়। তাকে আটকের পর তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন এলাকাবাসী। প্রধান শিক্ষক মাওলানা আল আমিন এই মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক। একইসঙ্গে তিনি নয়ামাটি এলাকায় একটি মসজিদে ইমাম হিসেবেও দায়িত্ব পালন করে আসছেন বলে র‌্যাব জানিয়েছে।

র‌্যাব-১১ এর সিও লে: কর্ণেল কাজী শামশের জানান, গত ২৭ জুন সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকায় অক্সফোর্ড হাই স্কুলের ২০ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক আশরাফুল আরিফকে গ্রেফতারের ঘটনায় টেলিভিশনে প্রচারিত একটি সংবাদের ভিডিও ক্লিপ তার ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেন। ওই পোস্ট দেখে গত দুইদিন আগে ফতুল্লার বাইতুল হুদা ক্যাডেট মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ও তার মা র‌্যাবের কর্মকর্তাকে এই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক আল আমিনের ব্যাপারে এসব তথ্য দেন। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মেয়ের জবানবন্দি নেন। একইসাথে আরো বেশ কয়েকজন ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকের কাছ থেকে এ ধরণের আরো অভিযোগ পান। সকালে ওই মাদ্রাসায় গিয়ে প্রধান শিক্ষক আল আমিনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি ১২ জন ছাত্রীকে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ স্বীকার করেন। পরে তাকে আটক করা হয়।

0 Shares
শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.