প্রশাসন আমাকে ব্যালেটে সীল মারতে সহায়তা করবে-১ নং ওয়ার্ড প্রার্থী ফারুক

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর  প্রার্থী ওমর ফারুক প্রকাশ্যে বলেছেন, নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসন আমাকে ব্যালেটে সীল মারতে সহায়তা করবে।
ওমর ফারুক তার ঝুড়ি প্রতিকের প্রচারনার বিষয়ে তার কর্মী সমর্থকদের দিক নির্দেশনা দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন। যা ইতিমধ্যে অডিও আকারে সিদ্ধিরগঞ্জের সাধারণ জনগনের কাছে বাইরাল হয়ে গেছে। (ওমর ফারুকের ধারন করা বক্তব্য অডিও আকারে সংরক্ষন করা আছে)।
তিনি আরো বলেন, আমার ভাই বাদ্রার ছাইড়া দিলে পারাইয়া মাইরা লাইবো। আমি বরিশাল থেকে আইছি নাকি। দেন দরবার করলে আমি ফারুক পারুম অন্য কোন প্রার্থী না।  প্রশাসন লেনদেন করলে আমি ফারুক পারুম। অন্য কেউ পারবো না। নির্বাচন কমিশন আমারে কইছে, ম্যাজিষ্ট্রেট কইছে কয়খান দিয়া সীল মারা বন্ধ করবো। ইচ্ছা যদি করি আমি ফারুক মারুম। কারন আমার কামাইয়ের টাকা আছে। আমার কোন টেনশন নাই। যত টাকা লাগে খরচ করমো। প্রশাসন আমাকে ব্যালেটে সীল মারতে সহায়তা করবে।
তিনি আরো বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমানের ক্ষমতা নাই যে কাউন্সিলর প্রার্থী বানাইবো। ক্ষমতা থাকলে আমার আছে।
এ বিষয়ে ১ নং ওয়ার্ডের কয়েকজন ভোটার জানান, ঝুড়ি প্রতিকের কাউন্সিলর প্রার্থী ওমর ফারুক এলাকায় সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে চলা ফেরা করে। মানুষকে ভয় ভীতি দেখাচ্ছে। তাছাড়া তিনি প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছে নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনকে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করেছে। জোর পূর্বক ভোট কেন্দ্র দখল করবে। তাই আমরা নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে যেতে ভয় পাচ্ছি। ১ নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটাররা ভোট প্রদানে শান্তিপূর্ণ পরিবেশের আশাংকা প্রকাশ করেছেন। তাই আগামী ২২ ডিসেম্বর নির্বাচনে শান্তিপূর্ন পরিবেশ তৈরি করে ভোট গ্রহনের জন্য নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের কাছে হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা। সেই সাথে দোষীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানিয়েছেন।
এদিকে ভোট প্রদানের শান্তিপূর্ন পরিবেশের শংকা প্রকাশ করে একজন সাধারন ভোটার নির্বাচনের রিটানিং অফিসারের বরাবরে অভিযোগ করেছেন।
এ বিষয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী ওমর ফারুককে ফোন দিলে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ব্যস্ত পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপ সচিব ও নাসিক রিটার্ণিং অফিসার মো. নুরুজ্জামান তালুকদারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, ১ নং  ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখবো। দোষী হলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এবিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি সরাফতউল্লাহ জানান, প্রশাসনের সহায়তায় কেউ যদি স্বপ্ন দেখে ব্যালেটে সীল মারবে তাহলে সে বোকার স্বর্গে বাস করছে। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করতে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবো। বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখবো।

Leave A Reply