নেতাকর্মীদের একত্রিত্ব করতে খালেদা জিয়া কর্মসূচীর ঘোষনা করেছেন-এড. কালাম

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সাংসদ এড. আবুল কালাম বলেন, সরকারের মিথ্যা মামলা হামলার শিকার হয়ে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিছিন্ন ভাবে জীবন যাপন করছে। তাদের সকলকে একত্রিত্ব করা এবং খোজ খবর নেয়ার জন্যই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এ কর্মসূচীর ঘোষনা করেছেন। বুধবার (৮ নভেম্বর) বিকেল ৪ টায় কালিবাজারস্থ মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ১৪নং ওয়ার্ড বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ১৪নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মোবারক হোসেন ভূইয়ার সভাপতিত্বে প্রধানবক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল। এছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এড. জাকির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আওলাদ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক হান্নান সরকার, বিএনপি নেতা মনিরুজ্জামান, রানা, সোহেল, এনামূল আহম্মেদ, মনির হোসেন, মহানগর মহিলা দলের সভানেত্রী দিলারা মাসুদ ময়না।
এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, নিবন্ধন করা আপনাদের অধিকার কারন আপনি বিএনপির রাজনীতি করছেন এটার বড় প্রমান হলো সদস্য ফরম। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দলকে সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করুন আর পদ পদবি নিয়ে কোন চিন্তার কারন নেই। আমি সকল ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদেরকে আহবান করবো আপনারা কমিটির তালিকা জমা দিন আমরা অনুমোদন দিয়ে দিবো।
প্রধানবক্তা হিসেবে এটিএম কামাল বলেন, মহানগর বিএনপির কমিটি ঘোষনা করার পর থেকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীগুলো সফল ভাবে আমরা পালন করতে সক্ষম হয়েছি। সেই জন্য কেন্দ্রী নেতৃবৃন্দরা মহানগরের আওতাধীন সকল নেতাকর্মীদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া মহানগর বিএনপির কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন। দেশনেত্রী আমার সামনে একাধিক বার বলেছেন আবুল কালাম নির্বাচন করবে আর মহানগর বিএনপির রাজনীতি কামাল করবে। যারা দলের চেইন অব কমান্ড ও কালাম ভাইয়ের নেতৃত্বকে না মেনে বিভক্তির রাজনীতি করছে। তারা দেশনেত্রীর নির্দেশকে অমান্য করছে। আমি সকল নেতাকর্মীদেরকে বলে দিতে চাই মূলদলের রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়ে চেইন অব কমান্ড মেনে সাংগঠনিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। আমরা তাদের হাতেই বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন সহ অঙ্গ-সংগঠনের কমিটির দায়িত্ব দিবো। এ সময় তিনি শহর বিএনপির সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের রোগ মুক্তির সকলের কাছে দোয়া কামনায় করেন।
এ সময় তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আগামী ১২ নভেম্বর কেন্দ্রীয় বিএনপি কর্মসূচীর ঘোষনা করেছে। প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে যদি ২শ বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী আসে তাহলে আমরা ৫ হাজারের উর্ধে নেতাকর্মী নিয়ে আমরা কেন্দ্রীয় কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করতে পারি। সেই জন্য সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন। বৃহস্পতিবার এই বিষয় নিয়ে প্রস্তুতি মূলক সভার আয়োজন করা হয়েছে আপনাদের সকলকে উপস্থিত থাকার আহবান জানাছি।
মহানগর স্বেচ্ছা সেবক দলের নেতা মাকিদ মোস্তাকিম শিপলুর সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলো, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম মজনু, বিএনপি নেতা সোলেমান, মহানগর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক সরকার আলম, মহানগর ছাত্রদল নেতা আরাফাত চৌধুরী, মেহেদী হাছান, শফিকুল ইসলাম, আব্দুল হাসিব, শাহীন শরিফ, দর্পন প্রধান, মোক্তাধির হোসাইন হৃদয়, সোহেল, মহানগর শ্রমিক দলের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনির মল্লিক, সদস্য সচিব আলী আজগর, যুগ্ম-আহবায়ক ফজলুল রহমান, সদর থানা শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন মোল্লা, মহানগর স্বেচ্ছা সেবক দলের নেতা আব্দুর রশিদ হাওলাদার সহ ১৪নং ওয়ার্ড বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Leave A Reply