জনপ্রতিনিধিদের পর এবার জাপা নেতাদের দাবী সেলিম ওসমানকে চাই

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আগামী সংসদ নির্বাচনে এমপি সেলিম ওসমানকে আবারো প্রার্থী হতে ৮৭জন জনপ্রতিনিধি পর এবার জোরালো দাবী তুলেছেন জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা। নির্বাচিত স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মত দলীয় নেতাদের দাবীও একটাই এমপি হিসেবে সেলিম ওসমানের বিকল্প নাই। শুধুমাত্র পদবীধারী নেতারাই নয় জাতীয় পার্টি ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের তৃনমূলের সর্বস্তরের হাজার হাজার কর্মীদের দাবী সেলিম ওসমানকেই চাই। সেই লক্ষ্যে আগামী ২ নভেম্বর শুক্রবার বিকেল ৩টায় বন্দর খেয়াঘাট সংলগ্ন ময়মনসিংহপট্টিতে কর্মী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দরা আশাবাদী ওই সমাবেশে কর্মীদের আর দিদ্ধায় না রেখে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার কথা জানাবেন এমপি সেলিম ওসমান।

বুধবার ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টায় শহরের রাইফেল ক্লাবে জাতীয় পার্টি, যুব সংহতি, শ্রমিক পার্টি, সেচ্ছাসেবক পার্টি, মহিলা পার্টি ও ছাত্র সমাজের বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন এলাকার নেতৃস্থানীয় নেতাদের সাথে সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের মত বিনিময় সভায় নেতারা দাবী উত্থাপন সহ সমাবেশের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের এর সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক সানাউল্লাহ সানু, যুগ্ম আহবায়ক আফজাল হোসেন, সদস্য সচিব আকরাম আলী শাহীন, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি বাচ্চু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মঞ্জু হোসেন, জেলা শ্রমিক পার্টির আহবায়ক আবুল খায়ের ভূইয়া, জেলা সেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক কুতুবউদ্দিন আহম্মেদ, জেলা যুব সংহতির আহবায়ক রাজা হোসেন রাজু, গোগনগর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি মোক্তার হোসেন সহ জাতীয় পার্টি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি ও সম্পাদক সহ প্রায় সাড়ে ৩ শতাধিক নেতা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার ৩০ অক্টোবর শহরের চাষাঢ়ায় অবস্থিত রাইফেল ক্লাবে বিকেল সাড়ে ৫টায় সংসদ সদস্য ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে উন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত মতবিনিময় সভায় নারায়ণগঞ্জ-৫ নির্বাচনী এলাকার আওতাধীন ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার ৮৭জন জনপ্রতিনিধি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে তাঁকে আবারো নির্বাচনে অংশ নিতে হবেই। নারায়ণগঞ্জে আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থার প্রবর্তন, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে প্রতিটি পরিবারে বেকারত্ব দূর করে আর্থিক স্বচ্ছলতা অর্জনের লক্ষ্য বাস্তবায়নে সেলিম ওসমান ছাড়া অন্য কোন বিকল্প নাই। তাঁর বিকল্প একমাত্র তিনি নিজেই। তাই নির্বাচনে অংশ নিতে এমপি সেলিম ওসমানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য স্থানীয় মেম্বাররা আর ঘরে বসে থাকবেন না। এখন থেকেই তাঁরা নির্বাচনের মাঠে নামবেন বলে সাফ জানিয়ে দেন ইউপি মেম্বাররা।

মত বিনিময় সভায় মেম্বারগন এমপি সেলিম ওসমানকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমরা ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড মেম্বারাই একমাত্র জনপ্রতিনিধি যারা এলাকার প্রতিটি সাধারণ মানুষের দরজায় নিয়মিত যাতায়াত থাকে। তাই মানুষের মুখে গত সাড়ে ৪ বছরে নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে আপনার কর্মকান্ডের প্রশংসা এবং তাদের হৃদয়ে আপনার স্থান পাওয়ার বিষয়টি আমরা স্পষ্ট দেখতে পাই। নারায়ণগঞ্জের মানুষ আপনার প্রতি আস্থাশীল। আগামীতে আপনার হাত ধরে নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন আরো বহুদূর এগিয়ে যাবে। তাই কোন অবস্থাতেই আপনি স্থানীয় সকল জনপ্রতিনিধি এবং সাধারণ মানুষকে আশাহত করতে পারেন না।

যার উত্তরে এমপি সেলিম ওসমান বলেন, সংসদ সদস্য হিসেবে আমি একেবারেই নতুন ছিলাম। তাই বিগত দিনে যতটুকুই এলাকার উন্নয়ন করতে পেরেছি তাঁর মধ্যেও আমার অনেক ভুল ভ্রান্তি ছিলো। আমি আপনাদেরকে কথা দিচ্ছি ভবিষ্যতে এমন ভুল আর হবে না।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.