আড়াইহাজারে গৃহকর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় থানায় হত্যার অভিযোগ

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আড়াইহাজারে এক ষোড়সী গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনার ২দিন পর গৃহকর্তাসহ ৪জনকে আসামী করে থানায় হত্যার অভিযোগ করেছে গৃহকর্মী জরিনা আক্তার ওরফে রোজিনার পিতা আবু ছিদ্দিক।
নিহত গৃহকর্মী জরিনা আক্তার ওরফে রোজিনার পিতা আবু ছিদ্দিক অভিযোগ করছে গোপালদী পৌরসভাধিন দাইরাদী ব্যাপারীপাড়া গ্রামের ধর্নাঢ্য চাল ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান,তার ছেলে আতিকুর রহমান,আশিক ও মেয়ে আলভী জোটবদ্ধ হয়ে তার মেয়েকে নির্যাতন করে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। সে জানায়,পিতা পুত্রদের ভিন্ন ভিন্ন ভাবে অনৈতিক কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তার মেয়েকে তারা হত্যা করে। নিহতের শরীরের হাতে-পায়ে ও তলপেটে আঘাতের আলামত রয়েছে বলেও তিনি জানান। গৃহকর্মী জরিনা আক্তার ওরফে রোজিনার পিতা আবু ছিদ্দিক জানান,দীর্ঘদিন যাবত তার মেয়ের উপর যে অত্যাচার নির্যাতন তারা চালিয়েছে তা তার মেয়ে প্রায়ই তাদেরকে জানাত।
এদিকে ধর্নাঢ্য চাল ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান প্রভাব খাটিয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাল্টিয়ে আত্মহত্যার রিপোর্ট আনতে নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিসে প্রভাব খাটাচ্ছে বলে গৃহকর্মী জরিনা আক্তার ওরফে রোজিনার মা জোসনা বেগম অভিযোগ করেন।
এদিকে থানায় হত্যার অভিযোগ হওয়ার পরও অভিযুক্ত ধর্নাঢ্য মজিবুর রহমান পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক ফরিদ এর সাথে খোশগল্প করতে দেখছেন বলে নিহতের পরিবার অভিযোগ করছেন। তবে এস আই ফরিদ এ অভিযোগ অস্বীকার করেন।
এদিকে আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক হত্যার অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে জানান,ঘটনার তদন্ত করতে গোপালদী ফাঁড়ি পুলিশের এস আই ফরিদকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
এদিকে দাইরাদী এলাকার লোকজনদের সাথে কথা বলে জানাযায়,এ হত্যার ঘটনায় মজিবুর রহমানের পরিবারের জড়িত সদস্যদের কঠোর শাস্তির দাবী জানান।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.