“আওয়ামীলীগকে ধ্বংস করতেই শামীম ওসমানের নেতাকর্মীদের নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে”

0

বিজয় বার্তা ২৪ ডট কম

আওয়ামীলীগের প্রান কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত নারায়ণগঞ্জ। ইতিহাস স্বাক্ষী এদেশের বড় বড় আন্দোলনে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের অংশগ্রহনের কথা। ৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৬৯ এর গন অভ্যুথান এবং ৭১ এর মুক্তিযোদ্ধ সহ এ সকল আন্দোলনে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের আত্মত্যাগ ছিল চোখে পড়ার মত। খোদ আওয়ামীলীগেরও জন্ম এই নারায়ণগঞ্জে। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকেও আওয়ামীলীগের সকল আন্দোলন সংগ্রামের ডাক শুরু হয় এই নারায়ণগঞ্জ থেকেই। আর এই নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করে রেখেছে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ ও আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান। আওয়ামীলীগের একজন কান্ডারী নেতা হিসেবে পরিচিত এই সাংসদ।

আওয়ামীলীগের খারাপ সময়ে শামীম ওসমানের নেতৃতে¦ ঢাকার রাজপথ কম্পিত করে আসছে তার নেতাকর্মীরা। এমনকি নারায়ণগঞ্জে মাটি থেকে জামায়াতের গোলাম আজমকে নিষিদ্ধ করেছিলেন শামীম ওসমান। লং মার্চে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি আটকে দেওয়া এবং জিয়াউর রহমানের পথ গতিরোধ করেছিল তিনি। ৯৬ এর আন্দোলনে ভূমিকা ও টানবাজারের পতিতাপল্লী উচ্ছেদ করে নারায়ণগঞ্জকে কলংক মুক্ত করেছেন এই শামীম ওসমান। যারা কাজ করে বেশী তাদের দোষও বেশী। ষড়যন্ত্রকারীরা আওয়ামীলীগকে ধ্বংসের পায়তারা চালাচ্ছে বলে এমন মন্তব্য করেছেন শামীম ওসমান ও তার নেতাকর্মীরা। আর ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার শক্তি ও সৎ সাহস শামীম ওসমানের নেতাকর্মীদের আছে বলে জানায় তারা।

টানা তৃতীয়বারের মত ক্ষমতায় রয়েছে আওয়ামীলীগ। দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকায় দলটির যেমন রয়েছে আলোচনা তেমনি রয়েছে সমালোচনা। আওয়ামীলীগ মানেই শামীম ওসমান। আর শামীম ওসমানের প্রান শক্তি তার নেতাকর্মী। আওয়ামীলীগকে ধ্বংস করতে শামীম ওসমানের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন নেতৃবৃন্দ। গত ৬ মে নারায়ণগঞ্জের একটি স্থানীয় দৈনিকে “অপরাধীদের তালিকার শীর্ষে ক্ষমতাসীনরা!” শিরোনামে সংবাদের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করেন তারা।

মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম বলেন, আমার ৩৫ বছরের রাজনীতিতে গেরাকলে পড়ার মতো কোন অপরাধ করিনি। আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি কোন ধরনের অপরাধ মূলক কাজের সাথে আমি জড়িত না। আমার অপরাধ করলে একটাই করেছি আওয়ামী রাজনীতিতে কোন বেঈমানী করিনি। এটা যদি অপরাধ হয় তাহলে এ অপরাধ আমি বার বার করবো। কারন বেঈমানী রাজনীতি আমাদের শেখায়নি আমাদের প্রিয় নেতা শামীম ওসমান। গনতন্ত্রের মানসকন্যা বিশ্ব মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রশ্নে শামীম ওসমান ভাই যেমন কোন আপোষ করেননি আমরাও আপোষ করবো না। এমন ধরনের ঘরবাঁধা সংবাদ প্রচার করেন তা সত্যি সত্যি দুঃখজনক। আমদেরও পরিবার আছে, আত্বীয়স্¦জন আছে, সমাজ আছে। এর আগেও ষড়যন্ত্র হয়েছে আমরা মোকাবেলা করেছি। সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার শক্তি ও সৎ সাহস জননেতা শামীম ওসমানের নেতাকর্মীদের আছে।

মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল বলেন, আমাদের রাজনৈতিক শিক্ষক জননেতা শামীম ওসমান কখনো অন্যায় অপরাধের সাথে আপোষ করেনি। আমরা তার ছাত্ররাও কখনো আপোষ করিনি আর করবোনা। মোস্তাকরা আর কুচক্রি মহল সব সময় ষড়যন্ত্র করে আসছে। যারা কাজ করে বেশী তাদের দোষও বেশী। আমি একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে বলতে চাই, আমার ৩৭ বছরের রাজনীতির জীবনে কখনো এমন অপরাধমূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়াই নাই। কেউ প্রমান দিতে পারবে আমাদের অপরাধের। কি অপরাধ করেছি আমরা। কখনো আমাদের নেতা অপরাধীদের প্রশয় দেয় না আমরাও দেইনা।

মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু বলেন, জননেতা শামীম ওসমানকে দুর্বল করতে আমাদের উপর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমরা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারন করে মাননীয় সাংসদ শামীম ওসমানের রাজনীতি করি। এর আগেও অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে আমরা মোকাবেলা করেছি। শামীম ওসমানের সৈনিকেরা ষড়যন্ত্রকে ভয় পায় না। আমাদের নিয়ে বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। পারলে একটি অপরাধের প্রমান দেওয়া হোক আমরা মাথা পেতে নিবো। আর যদি মিথ্যা অপবাদ দেওয়া হয় তাহলে ছাড় দেওয়া হবে না।

ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল বলেন, আমরা যদি সত্যিই অপরাধী হই আমাদের বিরুদ্ধে পুলিশ তদন্ত করুক। আমাদের অবৈধ কিছু থাকলে এদেশের আয়কর বিভাগ আছে প্রশাসন আছে তারা দেখুক। কেন বারবার আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ বাইতুল আমান থেকে আওয়ামীলীগের জন্ম। আমি মনে করি আওয়ামীলীগ মানেই শামীম ওসমান। সকল ষড়যন্ত্রের সময় মত জবাব দেওয়া হবে।

জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, আমরা কখনো অপরাধীদের প্রশয় দেই না। নিজেও অপরাধের সাথে জড়াই না। আমি এই ষড়যন্ত্রমূলক অপ প্রচারের তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

সিদ্ধিরগঞ্জ যুবলীগের সভাপতি কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, আমরা কখনো অন্যায় কাজের সাথে জড়িত ছিলাম না আর জড়াবোও না। সমাজে হেয় করার জন্য আমাদের বিরুদ্ধে এমন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারন করে আমার প্রানপ্রিয় নেতা শামীম ওসমানের নেতৃত্বে জনসেবায় কাজ করছি। সবসময় অপরাধীদের বিপক্ষে ছিলাম এখনো আছি। আমি এই ষড়যন্ত্রের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক শাহজালাল বাদল বলেন, আমাদেরকে সমাজে হেয় করতে এ ধরনের মিথ্যা ভিত্তিহীন অপরাধের সাথে জড়িয়ে অপপ্রচার করা হচ্ছে। শামীম ওসমানের সৈনিকেরা কোন ষড়যন্ত্রকে ভয় করে না। তিনি যেমন অন্যায়ের সাথে আপোষ করেন না আমরা তার সৈনিকেরা অন্যায়ের সাথে আপোষ করিনা।

0 Shares
শেয়ার করুন.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.